মাস্কের ব্যবহার নিয়ে আশার বানী শোনালেন বিজ্ঞানীরা

মাস্কের ব্যবহার নিয়ে আশার বানী শোনালেন বিজ্ঞানীরা

lokaloy24.com

লোকালয় ডেস্কঃ  করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে মুক্ত থাকার অন্যতম উপায় হচ্ছে মাস্ক ব্যবহার। সম্প্রতি করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে মাস্ক নিয়ে নতুন নির্দেশিকা জারি করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এই নির্দেশিকায় জানিয়েছে, নিয়ম মেনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা সম্ভব না হলে, সাধারণ কাপড়ের মাস্কে করোনার সংক্রমণ বন্ধ করা যাবে না। এ ক্ষেত্রে কেবল তিন স্তর বিশিষ্ট মাস্ক পরার পরামর্শ দিয়েছে সংস্থাটি।

তাছড়া এবার নিয়মিত মাস্ক ব্যবহার নিয়ে এবার নতুন আশার বাণী শোনালেন জার্মান বিজ্ঞানীরাও। তাদের দাবি, নিয়মিত মাস্কের ব্যবহারে করোনা সংক্রমণের হার ৪০ শতাংশ পর্যন্ত কমিয়ে আনা যেতে পারে। এছাড়াও মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করার পর অবিশ্বাস্য সাফল্য মিলেছে বলেও দাবি করেছেন তারা।

জার্মানির আইজেডএ ইনস্টিটিউট অব লেবার ইন বন- এর গবেষকরা জানিয়েছেন, মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করার ১০ দিনের মধ্যেই জার্মানির শহর জেনায় করোনাভাইরাস আক্রান্তের হার ২.৩ শতাংশ থেকে ১৩ শতাংশ পর্যন্ত কমে গিয়েছে।

একইভাবে দেশটির আরো বেশ কয়েকটি শহরে সমীক্ষা চালিয়ে আইজেডএ ইনস্টিটিউট অব লেবার ইন বন- এর গবেষকরা দাবি করেছেন, এভাবে সর্বত্র মাস্কের ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা গেলে দৈনন্দিন করোনা সংক্রমণের হার প্রায় ৪০ শতাংশ পর্যন্ত কমিয়ে আনা সম্ভব।।

এছাড়াও শুক্রবার ‘নিউ ইংল্যান্ড জার্নাল অব মেডিসিন’-এ একটি গবেষণাপত্র প্রকাশিত হয়েছে। যাতে ফেব্রুয়ারি মাসে ডায়মন্ড প্রিন্সেস ক্রুজের উপসর্গহীন এবং উপসর্গযুক্ত করোনা আক্রান্তদের মাস্ক পরার প্রভাবের উপর সমীক্ষা করা হয়েছিলো। এই সমীক্ষাতেও মাস্কের ব্যবহারের ফলে দৈনন্দিন করোনা সংক্রমণের হার কমার প্রমাণ মিলেছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com