সংবাদ শিরোনাম :
বৃদ্ধ ভিক্ষুকের ১৯ হাজার টাকা ছিনতাই, কাঁদতে কাঁদতে মাটিতে লুটিয়ে বার বার মূর্ছা

বৃদ্ধ ভিক্ষুকের ১৯ হাজার টাকা ছিনতাই, কাঁদতে কাঁদতে মাটিতে লুটিয়ে বার বার মূর্ছা

বৃদ্ধ ভিক্ষুকের ১৯ হাজার টাকা ছিনতাই, কাঁদতে কাঁদতে মাটিতে লুটিয়ে বার বার মূর্ছা
বৃদ্ধ ভিক্ষুকের ১৯ হাজার টাকা ছিনতাই, কাঁদতে কাঁদতে মাটিতে লুটিয়ে বার বার মূর্ছা

লোকালয় ডেস্কঃ  দুবেলা-দুমুঠো ভাতের যোগান দিতে শত বছরের কাছাকাছি কঙ্কাল সদৃশ্য এই বৃদ্ধের ভিক্ষা ছাড়া অন্য কোন উপায় নেই। তাই বাধ্য হয়ে জীবন-জীবিকার জন্য ভিক্ষা বৃত্তিকে বেছে নিয়েছেন লাতু মিয়া। ফেনীর পরশুরাম, ফুলগাজী ও ছাগলনাইয়া উপজেলার নিত্য যাতায়াতকারীদের কাছে চেনামুখ লাতু মিয়া।

মঙ্গলবার (১১ জুন) রাতে ফেনী হাসপাতাল মোড় যার বর্তমান নাম (একরাম চত্তর) বাস ও সিএনজি ষ্টেশনে অভিনব কায়দায় ভিক্ষুকের সাড়ে ১৯ হাজার টাকা ছিনতাই করে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। ওই বৃদ্ধ গতকাল বুধবার সারাদিন টাকার জন্য কাঁদতে কাঁদতে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে বার বার মুর্চ্ছা যান।

ছিনতাইয়ের শিকার লাতু মিয়া হাসপাতালের মোড়ে সারা দিন ভিক্ষা করে রাতে বিভিন্ন দোকানের সামনেই ঘুমিয়ে থাকেন। প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবারও সারাদিন ভিক্ষা করে রাতে ক্লান্ত শরীরে বিশ্রাম দিতে ঘুমের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন এমন সময় রাত সাড়ে ১১টার দিকে অজ্ঞাত দুইজন মোটর সাইকেল আরোহী লাতু মিয়ার কাছে গিয়ে ‘টাইগার ড্রিংকস’ খেতে দেয়। কিন্তু বৃদ্ধ লাতু মিয়া টাইগার খেতে অনিহা দেখালে ছিনতাইকারীদের একজন তাকে থাপ্পর মাড়ার ভয় দেখায় এবং এসময় অপর ছিনতাইকারী তার ব্যাগে থাকা সাড়ে ১৯ হাজার টাকা ছিনতাই করে নিয়ে যায়।

স্থানীয় এক যুবক ছিনতাইয়ের বর্ননা দিয়ে বলেন- তার দোকান থেকে টাইগার নিয়ে ছিনতাইকারীরা ওই বৃদ্ধকে খাওনোর চেষ্টা করে এবং কৌশলে তাঁর কাছ থেকে সাড়ে ১৯ হাজার টাকা ছিনতাই করে নিয়ে যায়। ছিনতাইকারীরা হাসপাতাল মোড় এলাকার অনেকেরই চেনাজানা।

বৃদ্ধ লাতু মিয়া কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার আলি আজ্জম এর ছেলে। ফেনীতে লাতু মিয়ার আপনজন বলতে কেউ নেই। তাই দুবেলা-দুমুঠো ভাত খেয়ে বেঁচে থাকার জন্য এ বয়সেও তিনি ভিক্ষা করে সাড়ে ১৯ হাজার টাকা জমা করে তার সাথে রেখে দেন।

স্থানীয় কয়েকজন অভিযোগ করেন- ওই ভিক্ষুকের টাকা ছিনতাইয়ের বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করা হলেও পুলিশ কোন ব্যবস্থা নেননি। আরো জানান, ওই স্থানে টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা নতুন নয়। তবে মঙ্গলবার রাতে ভিক্ষুকের টাকা ছিনতাই করে একটি অমানবিক ঘটনার জন্ম দিয়েছে।

সিএনজি চালক আবদুর রহিম বলেন, ‘এমন অভিনব কায়দায় ভিক্ষুকের টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনাটি অত্যন্ত দুঃখজনক। তবে এসব ঘটনায় যারা জড়িত তাদের দ্রুত খুঁজে বের করে করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা প্রয়োজন।

ফেনী থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ মুঠোফোনে সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, তিনি ছুটিতে আছেন, তবে বুধবার বিকালে বিষয়টি সম্পর্কে অবগত হওয়ার পরপরই ডিউটিরত পুলিশকে ঘটনার তদন্তের জন্য বলা হয়েছে। এ ঘটনায় কেউ অভিযোগ না দিলেও পুলিশ ছিনতাইকারিদের ধরতে তৎপর রয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com