বিয়েতে বর-কনেকে উপহার ৩০ কেজি পেঁয়াজ!

বিয়েতে বর-কনেকে উপহার ৩০ কেজি পেঁয়াজ!

বিয়েতে বর-কনেকে উপহার ৩০ কেজি পেঁয়াজ!
বিয়েতে বর-কনেকে উপহার ৩০ কেজি পেঁয়াজ!

কিছু দিন আগেই টমেটোর গয়না পরে এক পাকিস্তানি নারীর বিয়ের ছবি ছড়িয়ে পড়েছিল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। দাবি ছিল, টমেটোর অস্বাভাবিক দামের প্রতিবাদেই এই গয়না পড়েছেন তিনি। এ বার ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান শহরের এক বিয়ের অনুষ্ঠানে বর-কনেকে বাজারে আগুন ধরানো ৩০ কেজি পেঁয়াজ উপহার দিলেন বন্ধুরা। খবর আনন্দবাজার অনলাইন।

বর-কনের বন্ধুদের দাবি, সেঞ্চুরি হাঁকানো পেঁয়াজ সংসারে অশান্তি বাধিয়ে দিচ্ছে। রসনায় টান পড়ছে। নবদম্পতির ক্ষেত্রে অন্তত তা যেন না হয় তাই এই উপহার বেছেছেন তারা। অভিনব উপহারে খুশি ওই দম্পতিও।

রোববার দিঘিরপুল এলাকার একটি অনুষ্ঠান বাড়িতে রাজগঞ্জের সঙ্গীতা কুণ্ডু ও আলমগঞ্জের শুভম রায়ের বিয়ে হয়। সেখানেই সকালে গায়ে হলুদের সময় কনের বন্ধুরা হাজির হন এক ঝুড়ি পেঁয়াজ নিয়ে। অতিথি, আত্মীয়দের অবাক দৃষ্টি দেখে তারা স্পষ্ট করে দেন, এক ঝুড়ি নয় আসলে তিরিশ কেজি পেঁয়াজ কিনেছেন তারা। এটাই বিয়ের উপহার।

কপিলকুমার কুন্ডু, জয়ন্ত আচার্য, পূজা রাজবংশী, ভোলানাথ রাজবংশীরা বলেন, ‘পেঁয়াজ এখন মহার্ঘ্য। প্রতিদিন বাজারে হা হুতাশ শুনছি। সোশ্যাল মিডিয়ায় সোনার সঙ্গে তুলনা করা হচ্ছে পেঁয়াজকে। তাই একটু অন্যরকম অথচ উপকারী উপহার হিসেবে পেঁয়াজের কথা মাথায় আসে আমাদের।’ বাজার থেকে ৮০ টাকা কেজিতে ওই পেঁয়াজ কিনেছেন বলেও জানান তারা।

কনে সঙ্গীতা বলেন, ‘খবরে এই ধরনের ঘটনা শুনেছি। নিজের ক্ষেত্রে এমন অভিজ্ঞতা হবে ভাবিনি। তবে শরীর ভাল রাখতে বা খাবারের স্বাদ বাড়াতে উপহার যে উপকারী তা নিয়ে সন্দেহ নেই।’ অষ্টমঙ্গলা পর্যন্ত বাড়িতে লোকজন থাকবে। তরকারি থেকে মাছ-মাংস রান্নায় এই পেঁয়াজের অনেকখানিই ব্যবহার করা যাবে, দাবি তার।

যদিও এত দামী জিনিস রাখবেন কোথায়, তা নিয়ে চিন্তায় পড়েছেন পেশায় ব্যবসায়ী পাত্র। ঘরের মেঝেতে ছড়িয়ে রাখলে না কি, ছোট ছোট বস্তায় ভরে ঝুলিয়ে রাখলে পেঁয়াজ ভাল থাকবে তা নিয়ে ভাবতে শুরু করেছেন তিনি।

শুভম হেসে বলেন, ‘আসলে এমন দামী জিনিসের জন্য প্রস্তুত ছিলাম না, তাই আর কি!’

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com