সংবাদ শিরোনাম :
বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা আড়াই কোটি

বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা আড়াই কোটি

http://lokaloy24.com

 

লোকালয় ডেস্কঃজনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর সিস্টেম সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের (সিএসএসই) তথ্য অনুযায়ী, রোববার সকাল পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ৪৯ লাখ ১৭ হাজার ১৫১ জনে। এদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৮ লাখ ৪১ হাজার ৫৪৯ জনের। আর এ পর্যন্ত সেড়ে উঠেছে ১ কোটি ৬৩ লাখ ৪৪ হাজার ৮১২ জন।

বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা সবচেয়ে বেশি যুক্তরাষ্ট্রে। রোববার সকাল পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৫৯ লাখ ৬০ হাজার ৬৫২ জন। মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৮২ হাজার ৭৬০ জনের।

যুক্তরাষ্ট্রের পর করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ হচ্ছে ব্রাজিল। আক্রান্ত ও উভয় মৃত্যু- উভয় বিবেচনায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা লাতিন আমেরিকার দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ৩৮ লাখ ৪৬ হাজার ১৫৩ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ২০ হাজার ২৬২ জনের।

মৃত্যু বিবেচনায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিবেশী মেক্সিকো তৃতীয় স্থানে থাকলেও আক্রান্ত বিবেচনায় দেশটির অবস্থান আট নম্বরে। মেক্সিকোতে রোববার সকাল পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ৫ লাখ ৯১ হাজার ৭১২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬৩ হাজার ৮১৯ জনের।

আক্রান্ত বিবেচনায় তৃতীয় স্থানে থাকা ভারত মৃত্যু বিবেচনায় রয়েছে চতুর্থ স্থানে। দেশটিতে এ পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৩৪ লাখ ৬৩ হাজার ৯৭২ জন। আর মৃত্যু হয়েছে ৬২ হাজার ৫৫০ জনের।

ইউরোপের দেশ যুক্তরাজ্য মৃত্যু বিবেচনায় রয়েছে পঞ্চম স্থানে, তবে আক্রান্তের দিক থেকে দেশটির অবস্থান ১৩তম। রোববার সকাল পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ৩৪ হাজার ৯১৬ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৪১ হাজার ৫৮৫ জনের।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী এ পর্যন্ত ১৮৮টি দেশে ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

বাংলাদেশের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, দেশে শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় ২ হাজার ১৩১ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে এবং মৃত্যু হয়েছে আরও ৩২ জনের। সবমিলিয়ে শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত দেশে ৩ লাখ ৮ হাজার ৯২৫ জনের দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। মোট মৃত্যু হয়েছে ৪ হাজার ২০৬ জনের। আর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১ লাখ ৯৮ হাজার ৮৬৩ জন।

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা আড়াই কোটির কাছাকাছি পৌঁছে গেছে। আর মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৮ লাখ ৪০ হাজার।

জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর সিস্টেম সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের (সিএসএসই) তথ্য অনুযায়ী, রোববার সকাল পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ৪৯ লাখ ১৭ হাজার ১৫১ জনে। এদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৮ লাখ ৪১ হাজার ৫৪৯ জনের। আর এ পর্যন্ত সেড়ে উঠেছে ১ কোটি ৬৩ লাখ ৪৪ হাজার ৮১২ জন।

বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা সবচেয়ে বেশি যুক্তরাষ্ট্রে। রোববার সকাল পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৫৯ লাখ ৬০ হাজার ৬৫২ জন। মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৮২ হাজার ৭৬০ জনের।

যুক্তরাষ্ট্রের পর করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ হচ্ছে ব্রাজিল। আক্রান্ত ও উভয় মৃত্যু- উভয় বিবেচনায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা লাতিন আমেরিকার দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ৩৮ লাখ ৪৬ হাজার ১৫৩ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ২০ হাজার ২৬২ জনের।

মৃত্যু বিবেচনায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিবেশী মেক্সিকো তৃতীয় স্থানে থাকলেও আক্রান্ত বিবেচনায় দেশটির অবস্থান আট নম্বরে। মেক্সিকোতে রোববার সকাল পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ৫ লাখ ৯১ হাজার ৭১২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬৩ হাজার ৮১৯ জনের।

আক্রান্ত বিবেচনায় তৃতীয় স্থানে থাকা ভারত মৃত্যু বিবেচনায় রয়েছে চতুর্থ স্থানে। দেশটিতে এ পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৩৪ লাখ ৬৩ হাজার ৯৭২ জন। আর মৃত্যু হয়েছে ৬২ হাজার ৫৫০ জনের।

ইউরোপের দেশ যুক্তরাজ্য মৃত্যু বিবেচনায় রয়েছে পঞ্চম স্থানে, তবে আক্রান্তের দিক থেকে দেশটির অবস্থান ১৩তম। রোববার সকাল পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ৩৪ হাজার ৯১৬ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৪১ হাজার ৫৮৫ জনের।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী এ পর্যন্ত ১৮৮টি দেশে ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

বাংলাদেশের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, দেশে শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় ২ হাজার ১৩১ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে এবং মৃত্যু হয়েছে আরও ৩২ জনের। সবমিলিয়ে শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত দেশে ৩ লাখ ৮ হাজার ৯২৫ জনের দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। মোট মৃত্যু হয়েছে ৪ হাজার ২০৬ জনের। আর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১ লাখ ৯৮ হাজার ৮৬৩ জন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com