বিনা অপরাধে জেল ‘খাটার’ ব্যবস্থা করতে চায় রাজ্য সরকার

বিনা অপরাধে জেল ‘খাটার’ ব্যবস্থা করতে চায় রাজ্য সরকার

বিনা অপরাধে জেল ‘খাটার’ ব্যবস্থা করতে চায় রাজ্য সরকার

অনলাইন ডেস্ক : জেল! পুলিশ! বন্দির পোশাক-খাবার-গারদ, নাম শুনলেই সাধারণ মানুষের মনে ভয়ের আবহ তৈরি হয়৷ কিন্তু সেই ভয়কে জয় করে তাকে এনজয় করার পর্বে নিয়ে যেতেই এবার কেরল জেল ডিপার্টমেন্ট নিয়ে আসতে চলেছে এক অভিনব পন্থা৷ পরিকল্পনা অনুযায়ী সব ঠিকঠাক চললে “Pay And Stay” প্ল্যানে ট্যুরিস্টরা জেলে এসে সময় কাটিয়ে যেতে পারবেন৷

বিশ্বাস হচ্ছে না তো? কিন্তু এমনটাই জানা গিয়েছে৷ রাজ্যের সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষ সেন্ট্রাল জেলগুলির মধ্যে একটির পোর্টাল খুলবে, যেখানে জনসাধারণের ইচ্ছে হলে তারা টাকা দিয়ে এক দিন-রাত্রি কাটিয়ে যেতে পারবেন, অর্জন করতে পারবেন জেলে থাকার অভিজ্ঞতা৷ ত্রিশূরে প্রিজন মিউজিয়ামের একটি অঙ্গই হল এই “pay and stay” প্ল্যান৷ যদি এই প্রস্তাব সরকারি ছাড়পত্র পেয়ে যায় তাহলে ইচ্ছুক ব্যক্তিরা ২৪ঘন্টার জন্য জেল ক্যাম্পাসের প্রিজন মিউজিয়াম থাকতে পারবেন টাকার বিনিময়ে৷ শুধু থাকার ক্ষেত্রেই নয়, বন্দিদের যে খাবার দেওয়া হয় সেই খাবারই খেতে দেওয়া হবে তাদেরও, জানায় সংশোধনাগার বিভাগ৷

এক সংবাদ সংস্থার সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে জেলের ডিজিপি আর শ্রীলেখা জানান, এই প্রিজন মিউজিয়াম প্রোজেক্টের প্রস্তাব সরকারকে দেওয়া হয়েছে৷ জেল চত্ত্বরের মধ্যে সময় কাটানোর বিষয়টিও এগুলির মধ্যে একটি৷ রাজ্যে এই উদ্যোগ এই প্রথম বলে জানান উচ্চপদস্থ মহিলা আইপিএস আধিকারিক৷ তাঁর মতে, এই আপকামিং মিউজিয়ামে অনেক অ্যান্টিক বস্তুও থাকতে পারে(উদাহরণ স্বরূপ- ব্রিটিশদের সময়ের রেকর্ড, বন্দিদের ওপর অত্যাচারের সামগ্রী, হ্যান্ডকাফ, ব্রিটিশ পুলিশ আধিকারিকদের পোশাক, বন্দিদের দুর্লভ ছবি)৷

এদিকে, ভাইয়ুর সেন্ট্রাল জেলের সুপারিন্টেডেন্ট এম কে বিনোদ কুমার জানান, এই মিউজিয়াম কমপ্লেক্সে প্রদর্শনীর ব্যবস্থা, লাইব্রেরি, ক্যাফেটেরিয়া, লাইট অ্যান্ড সাউন্ড শো-এর মত ব্যবস্থাও রাখা হতে পারে৷ আর এই কমপ্লেক্সের ডিজাইন করছেন চেন্নাইয়ের এক আর্কিটেক্ট৷ তবে কন্সট্রাকশনের কাজে থাকবে রাজ্যের নির্মিথি কেন্দ্র৷ ছয় কোটি টাকার এই প্রজেক্টে ইতিমধ্যেই তিন কোটির অনুমোদন পাওয়া গিয়েছে৷

প্রসঙ্গত, ২২০ বছরের পুরনো তেলেঙ্গানার সেন্ট্রাল জেল ইতিমধ্যেই ট্যুরিস্টদের ৫০০টাকার বিনিময়ে একদিন জেলের আমেজ নেওয়ার, এক অন্যরকম অভিজ্ঞতা অর্জনের সুযোগ এনে দিয়েছে৷ সাঙ্গারেড্ডির ডিস্ট্রিক্ট সেন্ট্রাল জেল কিছুদিন আগেই মিউজিয়ামে রুপান্তরিত হয়ে “Feel the Jail” প্রোগ্রামের আওতায় ২৪ঘন্টা জেলে থাকার সুবিধা এনে দিয়েছে৷ প্রসঙ্গত, এই জেল হায়দরাবাদে ১৭৯৬সালে নিজামের রাজত্বের সময় নির্মিত হয়েছিল৷

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com