বার বার ধর্ষণ করে অন্তঃসত্ত্বা, প্রতিবন্ধী কিশোরী মেয়ের ভাষা বোঝেননি মা!

বার বার ধর্ষণ করে অন্তঃসত্ত্বা, প্রতিবন্ধী কিশোরী মেয়ের ভাষা বোঝেননি মা!

বার বার ধর্ষণ করে অন্তঃসত্ত্বা, প্রতিবন্ধী কিশোরী মেয়ের ভাষা বোঝেননি মা!
বার বার ধর্ষণ করে অন্তঃসত্ত্বা, প্রতিবন্ধী কিশোরী মেয়ের ভাষা বোঝেননি মা!

বরিশাল প্রতিনিধি : বরিশাল জেলার গৌরনদী উপজেলার চন্দ্রহার গ্রামে খাবারের প্রলোভন দেখিয়ে শারীরিক ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কিশোরীকে (১৪) বার বার ধর্ষণ করেছে লিয়াকত ফকির (৬০) নামের এক মুদি দোকানি। এ ঘটনায় ধর্ষক লিয়াকত ফকিরকে আটকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোর্পদ করেছে এলাকাবাসী।

বুধবার দুপুরে ওই তরুণীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে প্রেরণ করা হয়। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন গৌরনদী থানা পুলিশ। লিয়াকত ফকির উপজেলার চন্দ্রহার গ্রামের মৃত গনি ফকিরের ছেলে।

জানা যায়, গত ২৯ মার্চ দোকানে পণ্য কিনতে গেলে খাবারের প্রলোভনে ফাঁকা ঘরে নিয়ে ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে লিয়াকত। বাড়িতে এসে মাকে ধর্ষণের কথা জানায় কিশোরী। তবে তার মা বিষয়টি বুঝতে পারেননি। এরপর একইভাবে একাধিকবার ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে মুদি দোকানি। দফায় দফায় ধর্ষণের কারণে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে ওই কিশোরী। কিন্তু বার বার বিষয়টি মাকে জানালেও বিষয়টি বুঝতে পারেননি মা।

বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে একইভাবে এক প্রতিবেশীর খালি ঘরে নিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণের চেষ্টা করে লিয়াকত। কিশোরীর মা দেখে ফেলে চিৎকার দিলে প্রতিবেশীরা ছুটে আসলে ধর্ষক লিয়াকত পালিয়ে যায়। পরে থানায় মামলার পর ধর্ষক লিয়াকত ফকিরকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

গৌরনদী মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ মাহাবুবুর রহমান জানান, প্রতিবেশী শারীরিক ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কিশোরীকে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ধর্ষণকালে এলাকার লোকজন লিয়াকতকে হাতেনাতে অটক করে গণধোলাই দেয়।

তিনি আরো বলেন, এ ঘটনায় কিশোরীর পিতা বাদী হয়ে বুধবার দুপুরে গৌরনদী মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় লিয়াকতকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com