বারাক ওবামাকে হত্যার পরিকল্পনা!

বারাক ওবামাকে হত্যার পরিকল্পনা!

বারাক ওবামাকে হত্যার পরিকল্পনা!
বারাক ওবামাকে হত্যার পরিকল্পনা!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- মার্কিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (এফবিআই) বলেছে নিউ মেক্সিকো মিলিশিয়া গ্রুপের একজন সন্দেহভাজন নেতা সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাকে হত্যার পরিকল্পনা করেছে।

এফবিআই বলেছে তাদের কাছে তথ্য রয়েছে, বারাক ওবামা ছাড়াও ৬৯ বছর বয়সী ল্যারি মিচেল হপকিনস এবং তার দল ইউনাইটেড কন্সটিটিউশনাল প্যাট্রিয়টস হিলারি ক্লিনটন এবং ধণকুবের জর্জ সরোসকেও হত্যার পরিকল্পনা করেছেন।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, সন্দেহভাজন হামলাকারী আদালতে যে জবানবন্দী দিয়েছেন সেটি এ সপ্তাহে প্রকাশ করা হয়েছে। যদিও তিনি কবে একথা বলেছেন সেটি পরিষ্কারভাবে উল্লেখ করা হয়নি।

তবে হপকিনস-এর আইনজীবী এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তার আইনজীবী বলেছেন, হপকিনস এ ধরণের কোন পরিকল্পনা করেছেন- সেটি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

গত সোমবার হপকিন্সকে নিউ মেক্সিকোর একটি আদালতে উপস্থাপন করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আগ্নেয়াস্ত্র এবং বিস্ফোরক রাখার অভিযোগ আনা হয়েছে।

তাকে গত শনিবার আটক করা হয়েছে। এর আগে নিউ মেক্সিকোর সীমান্তে মরুভূমিতে তার দল বেশকিছু অভিবাসন প্রত্যাশীদেরকে আটক করেছিল।

তবে এই দলটি বলছে, আমেরিকার দক্ষিণ সীমান্ত দিয়ে অভিবাসন প্রত্যাশীরা যাতে সে দেশে ঢুকতে না পারে সেজন্য তারা মার্কিন সীমান্ত রক্ষীদের সাহায্য করছিল। কিন্তু সীমান্তে এই দলটির কর্মকাণ্ড নিয়ে অনেকে সমালোচনা করেছেন।

২০১৭ সালে এফবিআই এ দলটি সম্পর্কে অবগত হয়। তখন এফবিআই জানতে পারে যে ইউনাইটেড কন্সটিটিউশনাল প্যাট্রিয়ট নামের সংগঠনটি হপকিন্স-এর বাড়ির বাইরে থেকে কর্মকাণ্ড পরিচালনা করছে।

তাদের ২০ জন সদস্য আছে। তাদের কাছে একে৪৭ রাইফেল এবং অন্যান্য অস্ত্র থাকার খবর আসে এফবিআই-এর কাছে।

এফবিআই-এর বিশেষ এজেন্ট ডেভিড গ্যাব্রিয়েল আদালতে যে এফিডেভিট দাখিল করেছেন সেখানে বলা হয়েছে, ” হপকিন্স বক্তব্য দিয়েছে যে ইউনাইটেড কন্সটিউশনাল প্যাট্রিয়ট প্রশিক্ষণ দিচ্ছিল জর্জ সরোস, হিলারি ক্লিনটন এবং বারাক ওবামাকে হত্যা করার জন্য। কারণ তারা আনটিফা নামের একটি বামপন্থী গ্রুপকে সমর্থন করেন।”

কিন্তু অভিযুক্ত হপকিন্সের আইনজীবী ও’কনেল প্রশ্ন তোলেন, তাঁর মক্কেলকে কেন দুই বছর আগে আটক করা হয়নি?

তিনি আরো বলেন, ২০১৭ সালে এফবিআই হপকিন্স-এর বাড়ি তল্লাশি করেছিল। সে সময় তার বাড়িতে যেসব অস্ত্র পাওয়া গিয়েছিল, সেগুলোর মালিক ছিলেন হপকিন্স-এর স্ত্রী। কিন্তু সে সময় এফবিআই হপকিন্সকে আটক করেনি।

অভিযুক্তের আইনজীবী প্রশ্ন করেন, “এটা যদি এতোই ভয়ঙ্কর অপরাধ হতো, তাহলে তখন তাকে সাথে-সাথেই কেন আটক করা হয়নি?”

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com