বগুড়ায় আইসোলেশনে থাকা সেই শিশুর মৃত্যু

বগুড়ায় আইসোলেশনে থাকা সেই শিশুর মৃত্যু

lokaloy24.com

লোকালয় ডেস্ক: বগুড়ায় (কোভিড-১৯) করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে আইসোলেশনে থাকা ১৩ বছরের শিশুটির মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার (১ এপ্রিল) সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে বগুড়ায় ২৫০ শয্য বিশিষ্ট মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি থাকা অবস্থায় শিশুটির মৃত্যু হয়।

বুধবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে ১৩ বছর বয়সী ওই শিশুটিকে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি করে নেওয়া হয়। শিশুটির বাড়ি বগুড়ার গাবতলী উপজেলার মহিষাবান এলাকায়। শিশুটি গত সাতদিন আগে পায়ে ব্যথা অনুভূত হওয়াসহ জ্বরে আক্রান্ত হয়। এরপর গত তিনদিন আগে শিশুটির পা ফুলতে শুরু করে ও জ্বরের সঙ্গে শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়। পল্লিচিকিৎসক দ্বারা চিকিৎসা নেওয়ার পরেও উন্নতি না হওয়ায় সজ্ঞাহীন অবস্থায় বুধবার বিকেলে শিশুটিকে মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি করা হয়।

বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) ডা. শফিক আমিন কাজল জানান, ওই শিশুটির ৭দিন আগে পায়ে ব্যথা অনুভূত হয়। সে স্থানীয় এক পল্লিচিকিৎসকের কাছে চিকিৎসা নিয়েছিল।

তিনি বলেন, হাসপাতালে আনার সময় শিশুটির অবস্থা খুবই সংকটাপন্ন ছিল। সংজ্ঞাহীন ওই শিশুটিকে অক্সিজেন দেওয়ার পর তার অবস্থা কিছুটা স্থিতিশীল হয় তবে জ্ঞান ফেরেনি। পরে সন্ধ্যা পোনে ৭টার দিকে তার মৃত্যু হয়। শিশুটির নমুনা সংগ্রহ করে তা রাজশাহীতে পাঠানো হবেও জানান তিনি।

মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. এটিএম নুরুজ্জামান সঞ্চয় জানান, যেহেতু শিশুটিকে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে আইসোলেশনে নেওয়া হয়েছিল সে কারণে তার বাড়িসহ আশ-পাশের বাড়িগুলো লকডাউনের জন্য প্রশাসনকে জানানো হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com