পালিত হলো বিশ্ব বাঘ দিবস

পালিত হলো বিশ্ব বাঘ দিবস

নিজস্ব প্রতিনিধি : বিলুপ্তির আশঙ্কায় থাকা মাংসাশী প্রাণী বাঘকে বাঁচাতে ও সচেতনতা সৃষ্টিতে সারা বিশ্বের পাশাপাশি বাংলাদেশেও আজ পালিত হয়েছে বিশ্ব বাঘ দিবস।

দেশে বাঘের একমাত্র আবাসস্থল সুন্দরবন। তাই সুন্দরবন এলাকা বাগেরহাটের পর এ বছর খুলনাতেও জাতীয়ভাবে দিবসটি পালিত হয়েছে। এবার দিবসটির প্রতিপাদ্য ছিলো-‘বাঘ বাঁচাই, বাঁচাই বন, রক্ষা করি সুন্দরবন’।

২০১৫ সালের বাঘ গণনা অনুসারে, সুন্দরবনের বাংলাদেশ অংশে মাত্র ১০৬টি বাঘ বিদ্যমান রয়েছে। তবে বর্তমান সরকার কর্তৃক বিভিন্ন ব্যবস্থা নেয়ার ফলে সুন্দরবনে বাঘের সংখ্যা বৃদ্ধির আশা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

কয়েক বছর আগেও চোরাশিকারী চক্র এবং জলদস্যু-বনদস্যুদের তৎপরতার কারণে সুন্দরবনে বাঘ হুমকির মুখে ছিল। সম্প্রতি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর পদক্ষেপে সুন্দরবনে দস্যুতা এবং চোরাশিকারীদের তৎপরতা কমেছে। এ কারণে সুন্দরবনে আগের তুলনায় বাঘ অনেকটা সুরক্ষিত এবং বাঘের বিচরণক্ষেত্রও নিরাপদ বলে মনে করছে বন বিভাগ।

২০১০ সালে রাশিয়ার সেন্টস পিটাসবার্গের বাঘ সম্মেলনের মাধ্যমে গৃহীত সিদ্ধান্তের মাধ্যমে প্রতিবছর এদিনটিকে বিশ্ব বাঘ দিবস হিসেবে পালন করা হয়ে আসছে। ওই সম্মেলনের মাধ্যমে ২০২২ সালের মধ্যে বিদ্যমান বাঘের সংখ্যার দ্বিগুন করার লক্ষ্যমাত্রা নেয়া হয়।

বাংলাদেশ বন বিভাগের পক্ষ থেকে বলা হয়, কিছুদিন আগেও বিশ্বের ১৩টি দেশে বাঘ ছিল। এরপর কম্বোডিয়া বাঘ শূন্য হওয়ার কারণে বর্তমানে বাংলাদেশসহ মোট ১২টি দেশে বাঘের অস্তিত্ব টিকে আছে। সুন্দরবনে বর্তমানে বাঘের জন্য যে সব ঝুঁকি আছে তা নিয়ন্ত্রণে আছে বলেও জানিয়েছে সুন্দরবন কর্তৃপক্ষ।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

 
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com