নয় দফা দাবিতে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে বিক্ষোভ, অবরোধ

নয় দফা দাবিতে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে বিক্ষোভ, অবরোধ

নয় দফা দাবিতে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে বিক্ষোভ, অবরোধ ।

নিজস্ব প্রতিবেদক : ফুটপাতে দুই শিক্ষার্থীকে বাসে পিষে মারার প্রতিবাদ এবং নৌ-পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খানের ক্ষমাপ্রার্থনার দাবিতে তৃতীয় দিনের মতো রাজধানীতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার সকালে নয় দফা দাবিতে ফার্মগেট, মিরপুর ও ইসিবি চত্বরসহ রাজধানী গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলোকে বিক্ষোভ শুরু করেন তারা। এতে সকালের ব্যস্ততম সময়ে সড়কগুলোতে যান চলাচল বন্ধ হয়ে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। এসময় চরম ভোগান্তিতে পড়েন অফিসগামী ও অন্যান্য যাত্রীরা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, মঙ্গলবার সকাল পৌনে ১১টার দিকে তেজগাঁওয়ের ফার্মগেট পুলিশ বক্সের কাছে ব্যারিকেড দিয়ে সড়কটিতে যান চলাচলে বাধা দেয় সরকারি বিজ্ঞান কলেজের শিক্ষার্থীরা। পরে আধা ঘণ্টার পর পুলিশ তাদের বুঝিয়ে রাস্তা থেকে সরিয়ে নেয়।

এছাড়া সকালে ইসিবি ও মিরপুর-১ চত্বরে সড়ক অবরোধ করেন বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা। এতে ঘণ্টাখানেক ওইসব এলাকায় যান চলাচল স্থবির হয়ে যায়।

শিক্ষার্থীদের মৃত্যুর ঘটনায় ‘আমরা ন্যায়বিচার চাই’, ‘আমার ভাই মরল কেন, সরকার জবাব চাই’, ‘আমার বোন মরল কেন, সরকার জবাব চাই’ দাবিতে স্লোগান দিতে থাকেন বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা। পরে পুলিশের মধ্যস্থতায় সড়ক থেকে সরে যান শিক্ষার্থীরা।

গত রোববার রাজধানীর এয়ারপোর্ট সড়কে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সামনে ফুটপাতে বাসচাপায় দিয়া খানম মিম ও আবদুল করিম রাজিব নামে শহীদ রমিজউদ্দীন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী নিহত হন। এ ঘটনার প্রতিবাদে ওইদিন থেকেই আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীদের নয় দফা দাবি হচ্ছে- ১. বেপোরোয়া চালককে ফাঁসি দিতে হবে এবং এই শাস্তি সংবিধানে সংযোজন করতে হবে, ২. নৌ-পরিবহনমন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাহার করে শিক্ষার্থীদের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে, ৩. শিক্ষার্থীদের চলাচলে এমইএস ফুটওভার ব্রিজ বা বিকল্প নিরাপদ ব্যবস্থা নিতে হবে, ৪. প্রত্যেক সড়কের দুর্ঘটনাপ্রবণ এলাকায় স্পিড ব্রেকার দিতে হবে, ৫. সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ছাত্র-ছাত্রীদের দায়ভার সরকারকে নিতে হবে, ৬. শিক্ষার্থীরা বাস থামানোর সিগন্যাল দিলে থামিয়ে তাদের বাসে তুলতে হবে, ৭. শুধু ঢাকা নয়, সারাদেশে শিক্ষার্থীদের জন্য হাফ ভাড়ার ব্যবস্থা করতে হবে, ৮. রাস্তায় ফিটনেসবিহীন গাড়ি চলাচল এবং লাইসেন্স ছাড়া চালকদের গাড়ি চালনা বন্ধ করতে হবে এবং ৯. বাসে অতিরিক্ত যাত্রী নেয়া যাবে না। খবর: ইউএনবি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com