নির্বাচন করবেন না তরুণদের অাইডল ব্যারিস্টার সুমন

নির্বাচন করবেন না তরুণদের অাইডল ব্যারিস্টার সুমন

নির্বাচন করবেন না তরুণদের অাইডল ব্যারিস্টার সুমন
নির্বাচন করবেন না তরুণদের অাইডল ব্যারিস্টার সুমন

নিজস্ব প্রতিনিধি, হবিগঞ্জঃ ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন। ফেসবুকে যিনি ‘ব্যারিস্টার সুমন’ নামেই বেশি পরিচিত। তিনি শুধু পরিচিত নন, বেশ জনপ্রিয়। ‘ব্যারিস্টার সুমন’ শুধুমাত্র ব্যক্তিগত উদ্যোগে অনেক মহৎ কাজ করেছেন যা প্রতিনিয়ত তুলে ধরছেন জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে। শুধু হবিগঞ্জের মাধবপুর কিংবা চুনারুঘাটে নয় তিনি সারাদেশেই খুব জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। তরুণদের কাছেও তিনি আইডল।

সেই ‘ব্যারিস্টার সুমন’ সবাইকে জানিয়ে রেখেছিলেন আগামী সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হবেন। কিন্তু হঠাৎ করেই সেই স্বপ্নের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন তিনি। একই আসনে (হবিগঞ্জ-৪) বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. ফরাসউদ্দিন সম্ভাব্য প্রার্থী হওয়ায় আপাতত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বদ্বিতা না করার সিদ্ধান্তই নিয়েছেন তিনি।

রবিবার (১১ নভেম্বর) সকাল ১০টায় ফেসবুক লাইভে তার এ সিদ্ধান্তের কথা জানান।

মাঠে-ঘাটে, রাস্তায়-বাজারে যখন যেখানে সাধ্যমতো উন্নয়ন করা যায় সেখানেই এগিয়ে গেছেন ব্যারিস্টার সুমন। কখনো শ্রমিকদের সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে করেছেন মাটি কাটার কাজ আবার কখনো ছুটে গেছেন ধানক্ষেতে কৃষকদের পাশে। কাপড় ভিজিয়ে নেমে গেছেন সেতু নির্মাণ কিংবা সংস্কারের কাজে। মানুষের সেবার চেষ্টা করে যাচ্ছেন গণমানুষের কাতারে থেকেই। নিজের উপার্জন তিনি অকাতরে বিলিয়ে যাচ্ছেন সমাজ ও মানুষের উন্নয়নে। তার বিভিন্ন সমাজসেবামূলক কার্যক্রম ইতিমধ্যে বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় ব্যাপকভাবে আলোচিত হয়েছে। তার নির্বাচনী এলাকার অনেকেই জানিয়েছেন শুধুমাত্র ব্যক্তিগত জনপ্রিয়তা দিয়েই ‘ব্যারিস্টার সুমন’ সংসদ সদস্য নির্বাচিত হতে পারবেন।

ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমনের আরেকটি পরিচয় রয়েছে সেটি হলো তিনি তার অস্তিত্বে বঙ্গবন্ধুকে ধারণ করেন। তিনি হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের নির্বাহী সদস্য ও কেন্দ্রের বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য। এছাড়াও আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটরের দায়িত্ব পালন করছেন।

ব্যারিস্টার সুমন নির্বাচনে অংশ না নেয়ার ব্যাপারে  ফেসবুক লাইভে বলেন, ড. ফরাসউদ্দিন সর্বজন শ্রদ্ধেয় ব্যক্তি। বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে তার অনেক অবদান রয়েছে। তিনি নির্বাচিত হলে মন্ত্রী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তিনি মন্ত্রী হলে আমার এলাকার উন্নয়ন অবশ্যম্ভাবী। তাই তিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চাইলে আমি চাইতে পারি না।

তিনি আরো বলেন, ‘আমাকে সংসদ সদস্য হতেই হবে এরকম আদর্শ আমি ধারণ করিনা। আমি চাই এলাকার উন্নয়ন হোক। সেটা একজন যোগ্য লোকই করতে পারেন। মহান আল্লাহতায়ালার হুকুম থাকলে আমার এমপি হওয়ার স্বপ্ন কোন না কোনদিন পূরণ হবে। ’

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

 
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com