সংবাদ শিরোনাম :
শুল্ক ফাঁকির শতাধিক বিলাসবহুল গাড়ি এখন সিলেটে! দুবাইয়ে চাকরি দেয়ার কথা বলে টাকা আত্মসাত ॥ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা অবশেষে আবর্জনামুক্ত হচ্ছে হবিগঞ্জ শহরে আধুনিক স্টেডিয়ামের পাশ হবিগঞ্জে পুলিশের সঙ্গে জামায়াত নেতাকর্মীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা অপরাধ কর্মকাণ্ড রোধে সতর্ক পুলিশ শাহজীবাজার মাজারে প্রশাসনের আদেশ অমান্য করে কাফেলার আয়োজন সংবাদ প্রকাশের পর গার্নিং পার্কে মিনি পতিতালয়ের সন্ধান ডিবির অভিযানে ৫ কলগার্লসহ ৩ খদ্দর আটক কোরেশনগরে হোটেল যুবরাজ থেকে লাশ উদ্ধার ক্রোয়েশিয়াকে হারিয়ে ফাইনালে আর্জেন্টিনা ছেলের বিয়ের দাওয়াতে বের হয়ে বাড়ি ফেরা হলো না মায়ের
নামেই মাত্র প্রথম শ্রেনির পৌরসভা, সেবাতে নয়

নামেই মাত্র প্রথম শ্রেনির পৌরসভা, সেবাতে নয়

কিশোর কুমার দত্ত, লক্ষ্মীপুর:
প্রথম শ্রেণির পৌরসভা হলেও নাগরিক সুবিধা পাচ্ছে না লক্ষ্মীপুরের রায়পুর পৌর বাসিন্দারা। যেখানে নিয়মিত পৌর করের বোঝা বাড়লেও বাড়েনি নাগরিক সেবা। প্রতিষ্ঠার পর প্রায় ২৪ বছরেও চিত্ত বিনোদনের কোন ব্যবস্থা না থাকায় মাদকের প্রতি ঝুঁকছে তরুণ প্রজম্ম। এছাড়া অভ্যন্তরীণ সড়কগুলোর বেহালদশা, অল্প বৃষ্টিতেই জলাবদ্ধতা ও বিশুদ্ধ পানির সংকট এখন বাসিন্দাদের কাছে ভোগান্তির অন্যতম কারণ।

জানা যায়, ১৯৯৪ সালে প্রতিষ্ঠার পর ১৯৯৮ সালে প্রথম শ্রেণিতে উন্নিত হয় লক্ষ্মীপুরের রায়পুর পৌরসভা। ৯.০৫ বর্গকিলোমিটার এই পৌরসভাটিতে বসবাস প্রায় ৪৫ হাজার জনসংখ্যার। কিন্তু প্রথম শ্রেণির পৌরসভায় উন্নিত হলেও নাগরিক সুবিধা থেকে বঞ্চিত পৌরবাসী। ২০০২ সালে ডিপিএই-ই ডানিডা কর্তৃক পাইপ লাইন স্থাপন ও ৭০ লক্ষ হাজার লিটার পানি প্ল্যান্ট নির্মান করা হলেও পৌরবাসী ঠিকমতো পাচ্ছেনা বিশুদ্ধ পানি। এছাড়া পানি নিস্কাশনের জন্য নেই পযার্প্ত ড্রেনেজ ব্যবস্থাও। পৌরসভায় যত্রতত্র ডাস্টবিনের ব্যবস্থা না থাকায় যেখানে সেখানে ফেলা হচ্ছে ময়লা আর্বজনা। বেশির ভাগ সড়কগুলো খানা খন্দকে ভরা। নেই পৌরবাসীর জন্য বিনোদনের ব্যবস্থাও।

পৌরবাসীর অভিযোগ, নামে প্রথম শ্রেনির পৌরসভা। ঠিক মতো নেই পানির ব্যবস্থা। পৌরসভার বেশির ভাগ রাস্তা-ঘাট গুলোর বেহাল দশা। নেই মাদক বিরোধী অভিযান। পৌরসভার পানির বিল ও পৌর টেক্সের আগের তুলনায় অনেক বেশি। যদি পৌর বাসীর জন্য চিত্র বিনোদনের ব্যবস্থা করা হয় তাহলে যুব সমাজ মাদক থেকে বের হয়ে আসবে বলে মনে করেন পৌরবাসী। এছাড়া বিশুদ্ধ পানির সংকটে বাসিন্দাদের স্বাভাবিক জীবনযাপন ব্যাহত হচ্ছে। মাদকের প্রতি ঝুঁকছে তরুণ সমাজ।

পানির বিল ও পৌর টেক্স বেশির কথা স্বীকার করে পৌর কাউন্সিলর বলেন, পৌরসভার যে নাগরিক সুবিধা পাওয়ার কথা তা থেকে পৌরবাসী বঞ্চিত। তবে অর্থের অভাবে উন্নায়ন ব্যহত হচ্ছে বলে জানান তিনি।

রায়পুর পৌরসভার মানুষের সমস্যার কথা স্বীকার করে পৌরসভার মেয়র ইসমাইল হোসেন খোকন বলেন, পৌরবাসীর সকল সমস্যা দুর করার লক্ষে পৌরসভা কাজ করে যাচ্ছে। তাদের চিত্ত বিনোদনের জন্য শিশু পার্ক নিমার্ণের কাজ হাতে নেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে সড়ক নির্মাণ ও সংস্কার কাজ শুরু করা হয়েছে, পর্যায়ক্রমে সবগুলো সড়ক নির্মানসহ সার্বিক অবকাঠামোর উন্নয়ন করা হবে। অর্থ বরাদ্ধ না পাওয়ায় যথাযথভাবে উন্নয়ন কাজ করা যাচ্ছে না বলেও দাবি করেন তিনি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com