নবীগঞ্জে নারী নির্যাতনসহ ৭ মামলার পরোয়ানাভুক্ত আসামী প্রকাশ্যে ঘুরাফেরা করছে

নবীগঞ্জে নারী নির্যাতনসহ ৭ মামলার পরোয়ানাভুক্ত আসামী প্রকাশ্যে ঘুরাফেরা করছে

স্টাফ রিপোর্টারঃ হবিগঞ্জ  নবীগঞ্জ উপজেলার গজনাইপুর গ্রামে নারী নির্যাতনসহ ৭ মামলার পলাতক আসামী মোঃ ইয়াহিয়া প্রকাশ্যে ঘুরাফেরা করলেও রহস্যজনক কারণে গ্রেফতার করছে না পুলিশ। ফলে ন্যায় বিচার পাওয়া নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন মামলার বাদি। মামলার বিবরণে জানা যায়, নবীগঞ্জ উপজেলার গজনাইপুর গ্রামের �সয়দ উল্লার পুত্র ইয়াহিয়া তার স্ত্রী মিম বেগমকে ৫ লক্ষ টাকা যৌতুকের জন্য বেধড়ক মারপিট করেন ইয়াহিয়া। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে সিলেট ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। গত ১০ সেপ্টেম্বর ইয়াহিয়াকে প্রধান আসামি করে হবিগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ আদালতে মিম বেগম মামলা দায়ের করেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে রুজু করার জন্য নবীগঞ্জ থানাকে নির্দেশ দেন। পরে নবীগঞ্জ থানা পুলিশ ২২ সেপ্টেম্বর মামলাটি রুজু করে। এরপর তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হলেও প্রভাবশালী এক চেয়ারম্যানের কারণে পুলিশ তাকে অদ্যাবদি গ্রেফতার করেনি। এদিকে মামলার বাদি মিম বেগম জানান, মামলা তুলে নিতে ইয়াহিয়া ও তার লোকজন প্রতিনিয়ত সে সহ তার ফ্যামিলিকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছে। তিনি জানান, ইয়াহিয়ার বিরুদ্ধে ৫০ লক্ষ টাকার প্রতারণার অভিযোগে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে গজনাইপুর গ্রামের নুর মিয়া ওরফে ইকবাল বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেন। সে মামলায় তার বিরুদ্ধে পরোয়ানা রয়েছে। এ ছাড়া গজনাইপুর গ্রামের চেরাগ আলী বাদি হয়ে হত্যার চেষ্টা ও চুরিসহ দুইটি মামলা, নুর মিয়া ওরফে ইকবাল বাদি হয়ে প্রতারণার অভিযোগে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেন। সে মামলাগুলিতেও তার বিরুদ্ধে পরোয়ানা রয়েছে। তিনি আরও জানান, নুর মিয়া ওরফে ইকবাল মিয়ার সহায় সম্পদ, গাড়ি, বাড়িসহ ৪০ লক্ষ টাকার মালামাল প্রতারণার মাধ্যমে আতĄসাতের ও প্রায় ৫০ লাখ টাকার জমি বন্ধকের নামে প্রতারণার অভিযোগ এনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে উপ-মহাপরিদর্শক সিলেট রেঞ্জ বরাবরে গত ২৪ মে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। মামলার বাদি আরও জানান, ইয়াহিয়া মাদকসহ বিভিনś অপকর্মের সাথে জড়িত রয়েছে। ওই এলাকার প্রভাবশালী চেয়ারম্যানসহ বেশ কয়েকজনের দাপটে সে প্রকাশ্যে এসব অপকর্ম করে বেড়াচ্ছে। এ ব্যাপারে তার বিরুদ্ধে প্রশাসনের উচ্চ পর্যায়ে বিভিনś সময় অভিযোগ দেয়ার পরও সে প্রকাশ্যে ঘুরছে। তাকে গ্রেফতার করা হচ্ছে না। তাকে ধরতে অভিযান অব্যাহত আছে বলে জানায় নবীগঞ্জ থানা পুলিশ।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com