দুপুরে থানায় আত্মসমর্পণ, মধ্যরাতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

দুপুরে থানায় আত্মসমর্পণ, মধ্যরাতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

দুপুরে থানায় আত্মসমর্পণ, মধ্যরাতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত
দুপুরে থানায় আত্মসমর্পণ, মধ্যরাতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

চট্রগ্রাম- নিজেই থানায় গিয়ে বুধবার দুপুরে পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেছিলেন ১৩ মামলার আসামি মোহাম্মদ বেলাল (৪৩)। রাতে অস্ত্র উদ্ধারে গিয়ে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন তিনি।

পুলিশের দাবি, অস্ত্র উদ্ধারে নিয়ে যাওয়া বেলালকে ছিনিয়ে নিতে চেষ্টা করেছিল তার সহযোগীরা। বুধবার (৪ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত দেড়টার দিকে নগরের খুলশী থানার জালালাবাদ পাহাড়ে এই ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে।

মোহাম্মদ বেলাল (৪৩) নগরীর আমবাগানে রেলওয়ে লোকোশেড কলোনির আব্দুল কাদেরের ছেলে। তাদের বাড়ি কুমিল্লা জেলার চান্দিনা উপজেলার মোহনপুর গ্রামে।

খুলশী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রনব চৌধুরী গণমাধ্যমকে জানান, বুধবার দুপুর ১টার দিকে বেলাল নিজেই থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে রাত ১টার দিকে বেলালকে অস্ত্র উদ্ধারে নিয়ে যাওয়া হয় জালালাবাদ পাহাড়ে।

ওসির দাবি, অস্ত্র উদ্ধারে নিয়ে যাওয়া বেলালকে ছিনিয়ে নিতে তার সহযোগী একদল সন্ত্রাসী পুলিশের ওপর হামলা করে। এসময় উভয়পক্ষে গোলাগুলি হয়। প্রায় ১৫ থেকে ২০ মিনিট গোলাগুলির পর বেলালের সহযোগীরা পিছু হটে। পরে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ বেলালকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি প্রণব আরও জানান, বেলাল ছিল পুলিশের তালিকাভুক্ত ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ শীর্ষ সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে খুলশী থানায় ১১টি মামলা আছে। নগরীর অন্য থানায় আরও ২টি মামলা আছে।

সরকারি জমি দখল, চাঁদাবাজি, খুনসহ বিভিন্ন অপরাধের সঙ্গে জড়িত ছিলেন বেলাল।

ঘটনাস্থল থেকে একটি এলজি ও তিন রাউন্ড কার্তুজ এবং চারটি রামদা উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে বলেও জানান পুলিশের ওই কর্মকর্তা।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com