থার্টি ফার্স্ট নাইটে রাজধানীজুড়ে নিরাপত্তার লক্ষ্যে যত নিষেধাজ্ঞা

থার্টি ফার্স্ট নাইটে রাজধানীজুড়ে নিরাপত্তার লক্ষ্যে যত নিষেধাজ্ঞা

ইংরেজি নববর্ষ উপলক্ষে আজ রাতে রাজধানী ঢাকায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। ইংরেজি নতুন বছরের প্রথম প্রহর (থার্টি ফার্স্ট নাইট) উদযাপন উৎসবমুখর করতে নিশ্ছিদ্র ও সমন্বিত নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।
নগরবাসীর নিরাপত্তায় বিভিন্ন স্থানে মোতায়েন করা রয়েছে বিপুল পরিমাণ র‌্যাব ও পুলিশ।
আজ রবিবার রাতে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় দেখা যায়, গুরুত্বপূর্ণ এলাকাগুলোতে বসানো হয়েছে চেকপোস্ট। তল্লাশি চৌকিতে তল্লাশির মাধ্যমে আবাসিক এলাকায় প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে।

ইংরেজি নববর্ষ উপলক্ষে নিরাপত্তায় আগেভাগেই কোনো উন্মুক্ত স্থানে বা বাড়ির ছাদে কোনো সমাবেশ, গান-বাজনা করা, আতশবাজি ফোটানো সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করার কথা জানিয়েছেন ডিএমপি কমিশনার।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় রোববার রাত ৮টা হতে বহিরাগত কোন ব্যক্তি বা যানবাহন প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না। ওই সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় প্রবেশের ক্ষেত্রে সম্মানিত নাগরিকবৃন্দকে কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যদের কাছে পরিচয়পত্র প্রদর্শন করতে অনুরোধ করা হয়েছে।

এদিকে ডিএমপি সূত্র জানায়, গুলশান, বনানী ও বারিধারায় প্রবেশের সকল রাস্তা রোববার রাত ৮টা হতে বন্ধ রাখা হবে। তবে উক্ত এলাকায় বসবাসরত সম্মানিত নাগরিকগণের প্রবেশের জন্য কামাল আতাতুর্ক এভিনিউ (কাকলী ক্রসিং) এবং আমতলী ক্রসিং (মহাখালী) খোলা রাখা হবে। সেক্ষেত্রে গুলশান, বনানী ও বারিধারায় বসবাসরত সম্মানিত নাগরিকদের রাত ৮টার মধ্যে এসব এলাকায় প্রবেশের জন্য অনুরোধ জানানো হচ্ছে।

হাইকোর্ট পয়েন্ট হতে আগত সকল প্রকার গাড়ি সমূহ দোয়েল চত্বর বামে মোড় নিয়ে শহিদুল্লাহ হল হয়ে চাঁনখারপুল ক্রসিং দিয়ে বের হয়ে যেতে পারবে। কেউ বেপরোয়া, মদ্যপ ও বিপজ্জনক অবস্থায় গাড়ি চালাতে পারবে না।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com