ত্রীর মর্যাদা চাইতে গিয়ে লাঞ্ছিত ছাত্রলীগ নেত্রী

ত্রীর মর্যাদা চাইতে গিয়ে লাঞ্ছিত ছাত্রলীগ নেত্রী

অনলাইন ডেস্ক: স্ত্রীর মর্যাদা চাইতে গিয়ে ঝালকাঠি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সরদার মো. শাহ আলম ও তার স্ত্রীর হাতে নির্যাতনের শিকার হয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ফারজানা ববি নাদিরা (২৫)। আজ (১১ জুলাই) দুপুরে ঝালকাঠি জেলা পরিষদ কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা আহত অবস্থায় নাদিরাকে উদ্ধার করে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

স্ত্রীর মর্যাদা চাইতে আসা নাদিরা জানান, তিনি ঝালকাঠি জেলা পরিষদের ডিজিটাল সেন্টারে কম্পিউটার অপারেটর হিসেবে কাজ করেন। এই সুবাদে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সরদার মো. শাহ-আলমের সঙ্গে তার সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

নাদিরার অভিযোগ, সরদার মো. শাহ আলম গেল ৩ বছর ধরে তাকে স্ত্রীর মতো ব্যবহার করলেও আইনগতভাবে স্ত্রীর মর্যাদা দিচ্ছিলেন না।

বুধবার দুপর ১২টায় নাদিরা জেলা পরিষদে চেয়ারম্যান শাহ আলমের কক্ষে অবস্থান নিয়ে বিয়ের জন্য চাপ দিতে থাকেন। এক পর্যায়ে খবর পেয়ে বিকেল ৩টার দিকে জেলা পরিষদে এসে সরদার মো. শাহ আলমের স্ত্রী ও জেলা মহিলা পরিষদের সভানেত্রী শাহানা আলম নাদিরাকে মারধর শুরু করেন।

এ সময় নাদিরা দৌঁড়ে গিয়ে জেলা পরিষদের দোতলার ছাদে উঠে লাফ দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। তবে স্থানীয় কয়েকজন যুবলীগ নেতা নাদিরাকে ধরে আত্মহত্যার থেকে রক্ষা করলেও নাদিরা জ্ঞান হারিয়ে পড়ে যান। পরে তাকে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com