ডুব দিলেই মিলছে লাশ, স্বজনদের কান্নায় ভারী বুড়িগঙ্গার তীর

ডুব দিলেই মিলছে লাশ, স্বজনদের কান্নায় ভারী বুড়িগঙ্গার তীর

lokaloy24.com

লোকালয় ডেস্কঃ  রাজধানীর বুড়িগঙ্গা নদীতে ‘মর্নিং বার্ড’ নামের একটি লঞ্চ ডুবির স্থানে ডুব দিলেই মিলছে লাশ। এখন পর্যন্ত নারী-শিশুসহ ৩০ জনের মরদেহ উদ্ধার করেছেন নৌবাহিনীর ডুবুরি দল, ফায়ার সার্ভিস ও কোস্ট গার্ড সদস্যরা। আজ ২৯ জুন, সোমবার বেলা দেড়টা পর্যন্ত পাওয়া সংবাদ অনুযায়ী এখনো উদ্ধার কাজ চলছে।

সকাল ১০টার দিকে শ্যামবাজার ফরাশগঞ্জ এলাকায় অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে লঞ্চটি। তবে স্থানীয়দের দাবি, লঞ্চটিতে অন্তত দুই শতাধিক যাত্রী ছিলেন।

এখন পর্যন্ত উদ্ধার হওয়া মধ্যে ২৩ জন পুরুষ, পাঁচজন নারী এবং দুইজন শিশু রয়েছেন। মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক হাফিজুর রহমান।

জানা যায়, ‘মর্নিং বার্ড’ নামের লঞ্চটি অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে সকাল পৌনে ৮টার দিকে শতাধিক যাত্রী নিয়ে মুন্সীগঞ্জ থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে আসে। পথে সকাল ১০টার দিকে ফরাশগঞ্জ এলাকায় ‘ময়ূর-২’ নামের লঞ্চের সঙ্গে ধাক্কা লাগলে ডুবে যায় সেটি।

কেরানীগঞ্জের একটি ডকইয়ার্ড থেকে মেরামত শেষে ‘ময়ূর-২’ নদীতে নামানোর সময় দুর্ঘটনাটি ঘটে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন। লঞ্চটি থেকে কয়েকজন যাত্রী সাঁতরে তীরে উঠলেও বহু মানুষ এখনো নিখোঁজ রয়েছেন।

তাদের সন্ধানে ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট, নৌবাহিনীর ডুবুরি দলের সদস্যদের সাথে স্থানীয় লোকজনও উদ্ধার তৎপরতা চালাচ্ছেন। ডুবে যাওয়া লঞ্চে থাকা যাত্রীদের স্বজনদের কান্নায় ভারী হয়ে উঠেছে বুড়িগঙ্গার তীর।

এদিকে অভিযুক্ত লঞ্চটিকে আটক করা হলেও চালক পালিয়ে গেছেন। অন্যদিকে ডুবে যাওয়া লঞ্চটির অবস্থান শনাক্ত করা হয়েছে। সেটি পুরোপুরি উল্টে আছে। এর ভেতরে আরো মরদেহ রয়েছে বলে জানিয়েছেন ডুবুরিরা।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com