সংবাদ শিরোনাম :
প্রথম সংসদেই বাহুবলকে পৌরসভায় উন্নীত করণের দাবি তোলে ধরবো: মিলাদ গাজী এমপি শিক্ষার মান উন্নয়নে সরকার নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে: শেখ আফিল উদ্দিন এমপি বেনাপোল পদ্মবিল এখন দেশি-বিদেশি পাখির অভয়াশ্রম বেনাপোল পোর্ট থানার এসআই হাবিব জেলার শ্রেষ্ট পুলিশ অফিসার নির্বাচিত হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে ডাকাত লিলু আটক যতদিন বেঁচে থাকবো আপনাদের সংঘটের সাথে থাকতে চাই: এম পি পীর মিসবা নির্যাতিত সেই পূর্ণিমা কিনলেন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম বাঙ্গি টিভির মালিক মোশাররফ করিম! ২৭ জানুয়ারি বন্ধ হচ্ছে ৭ দিনের নিচের নেট প্যাকেজ সংসদকে কার্যকর করতেই জাপা বিরোধী দলের ভূমিকা পালন করবে: জিএম কাদের
টাঙ্গাইলে নিজের ছেলের জন্য বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে মাদ্রাসা ছাত্রীকে ২০দিন ধরে ধর্ষণ!

টাঙ্গাইলে নিজের ছেলের জন্য বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে মাদ্রাসা ছাত্রীকে ২০দিন ধরে ধর্ষণ!

টাঙ্গাইলে নিজের ছেলের জন্য বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে মাদ্রাসা ছাত্রীকে ২০দিন ধরে ধর্ষণ!
টাঙ্গাইলে নিজের ছেলের জন্য বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে মাদ্রাসা ছাত্রীকে ২০দিন ধরে ধর্ষণ!

টাঙ্গাইল : টাঙ্গাইলের সখীপুরে এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে প্রায় ২০ দিন ধরে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার কালিয়া ইউনিয়নের ধলীপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় রবিবার রাতে ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করার পর ওই রাতেই অভিযুক্ত মজিবর রহমানকে (৪২) ও তার স্ত্রী আমেনা বেগমকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পরে পুলিশ সোমবার সকালে গ্রেফতারকৃত মজিবরকে ৫ দিনের রিমাণ্ড চেয়ে টাঙ্গাইল আদালতে পাঠিয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, মজিবর রহমান ওই মাদরাসা ছাত্রীকে মাদরাসায় যাওয়ার পথে কুপ্রস্তাব দিতো। ছাত্রীটি কুপ্রস্তাবে রাজি হয়নি। এ অবস্থায় ২৪ ডিসেম্বর ওই ছাত্রী উপজেলার কালিয়া বাজারে কেনাকাটার জন্য যায়। এর পর থেকেই ওই ছাত্রীকে আর পাওয়া যায়নি।

মামলায় আরো উল্লেখ করা হয়, ওই মাদরাসা ছাত্রীকে মজিবর অপহরণ করে নিয়ে যায়। এরপর থেকে তাকে আটকে রেখে একাধিকবার জোর পূর্বক ধর্ষণ করা হয়। গত এক সপ্তাহ আগে মাদরাসায় যাওয়া-আসার পথে ফের অভিযুক্ত ব্যক্তি তাকে কৌশলে তুলে নিয়ে যায়। এবং আটকে রেখে নিয়মিত ধর্ষণ করে।

ওই ছাত্রীর মা বলেন, অভিযুক্ত মজিবর প্রতিবেশী হওয়ায় আমার মেয়েকে তার প্রবাসী ছেলের বউ করার জন্য নানাভাবে প্রস্তাব দেন। কিন্তু তার প্রস্তাবে আমরা রাজি হইনি। নিজের ছেলের বউ বানানোতে ব্যর্থ হয়ে নিজের অসৎ উদ্দেশ্য চরিতার্থ করতে উঠেপড়ে লাগে। কিন্তু সে যে এতবড় লম্পট তা বুঝতৈ পারিনি। তার নিজের ছেলে বিদেশে থাকতো আর সে আমার মেয়ের সর্বনাশ করতো-এই ছিল তার মনে। কিন্তু আমরা তার ছেলের সাথে বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ওই লম্পট আমার মেয়ের সর্বনাশ করে দিয়েছে। আমি এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করছি।

এ ব্যাপারে সখীপুর থানার ওসি আমির হোসেন বলেন, মামলা দায়েরের পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করেছে। মজিবরকে ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে টাঙ্গাইল আদালতে পাঠানো হয়েছে। তবে এখনো ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

 
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com