টাইগাররা ১৮ বছরে ১০৭ ম্যাচে হেরেছে ৮১টি, জয় মাত্র ১০

টাইগাররা ১৮ বছরে ১০৭ ম্যাচে হেরেছে ৮১টি, জয় মাত্র ১০

বাংলাদেশ ক্রিকেট দল

অনলাইন ডেস্ক: এবার ওয়েস্ট ইন্ডিজে গিয়ে টেস্ট খেলতে নেমে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল প্রথম ইনিংসে মাত্র ৪৩ রানে অলআউট হয়। এটা তাদের সর্বনিম্ন রানের রেকর্ড।

এরপর দ্বিতীয় ইনিংসেও সাকিব আল হাসান বাহিনী অলআউট হয় মাত্র ১৪৪ রানে। দুই ম্যাচের এই টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে মেজবান ওয়েস্ট ইন্ডিজের হাতে মেহমান বাংলাদেশ ইনিংস ও ২১৯ রানের বিশাল ব্যবধানে লজ্জাজনক হারের স্বাদ পায়।

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে নিজেদের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের এটা সবচেয়ে বড় জয়। প্রথম ইনিংসে তারা করেছিল ৪০৬ রান। এই ম্যাচে বাংলাদেশের দ্বিতীয় ইনিংসে উইকেট কিপার নূরুল হোসেন ৭৪ বল খেলে ছটি চার ও দুটি ছক্কায় ৬৪ রান করেন যা বাংলাদেশ দলের পক্ষে ছিল সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত স্কোর। এরপর উল্লেখযোগ্য রান সংগ্রাহক ছিলেন রুবেল হোসেন (১৬) ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ (১৫)। বাংলাদেশিদের মধ্যে ছয়জন ব্যাটসম্যান দুই অঙ্কের দেখা পাননি।

খেলায় ম্যান অব দ্য ম্যাচ হন ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ফাস্ট বোলার কেমার রোচ। তিনি প্রথম ইনিংসে আট রান দিয়ে পাঁচ উইকেট নেন। ক্যারিবীয় অপর ফার্স্ট বোলার শ্যানন গ্যাব্রিয়েল দ্বিতীয় ইনিংসে চমক দেখান- তিনি ৭৭ রান দিয়ে নেন ৫ উইকেট।

বাংলাদেশ ২০০০ সাল থেকে টেস্ট খেলা শুরু করে। সে হিসেবে এটা ছিল তাদের ১০৭তম ম্যাচ। এরমধ্যে জিতেছে মাত্র ১০টি ম্যাচে যেখানে হেরেছে ৮১ ম্যাচ, ড্র হয়েছে ১৬টি।

১০ জয়ের মধ্যে সবচেয়ে বেশি জিতেছে তারা অপেক্ষাকৃত দুর্বলতর প্রতিপক্ষ জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে- ৫টি ম্যাচ জেতে তারা আফ্রিকান দলটির বিরুদ্ধে। একইসঙ্গে পাকিস্তান, ভারত, নিউজিল্যান্ড আর দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে জয়ের মুখ দেখেনি তারা এখনও।

এই যখন অবস্থা তখন প্রিয় কালের কণ্ঠের পাঠক, আসুন দেখে নেওয়া যাক বাংলাদেশ দলের টেস্ট আমলনামার একটা সংক্ষিপ্ত চিত্র। ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম-এর বিশ্লেষণে দেখা যাচ্ছে- অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ৬ ম্যাচ খেলে বাংলাদেশ জয় পেয়েছে মাত্র ১টিতে, হেরেছে ৫টিতে।

 

ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম-এর বিশ্লেষণে টাইগারদের পারফরমেন্স

 

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৬ ম্যাচ খেলে জিতেছে মাত্র ১টিতে, বাকি ৯টিতে হার। ভারতের বিরুদ্ধে খেলা ৯ ম্যাচে হেরেছে ৭টিতে আর ড্র করেছে ২টি। নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ১৩ ম্যাচে ১০ জয় আর ৩ ড্র। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ১০ ম্যাচে ৯ হার, ১ ড্র। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ১২ ম্যাচে ১০ হার ও দুই ড্র। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ২০ ম্যাচে ১৬ হার ১ জয় ও তিন ড্র। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ১৩ ম্যাচে ৯ হার, দুই জয় ও দুই ড্র।

টেস্টে টাইগাররা সবচেয়ে বেশি টেস্ট জয় পেয়েছে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে- ১৪ ম্যাচ খেলে ৫ জয়। তবে এখানেও হারের চিত্রটা সুখকর নয়- ১৪ ম্যাচে তারা হেরেছে ৬ ম্যাচ, অর্থাৎ জয়ের চেয়ে ১টি বেশি হার আর ড্র ৩টি।

এমন একটা দল কোনো এক পর্যায়ে এসে এমন ফল করতেই পারে- এমন মন্তব্য করছেন দেশি ক্রিকেটভক্তদের কেউ কেউ। তবে এটা টাইগারদের সমর্থনে না সমালোচনায় তা বোঝা যায় না কথার ধরনে।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com