ঝটিকা পরিদর্শনে বিআরটিএ অফিসে ওবায়দুল কাদের

ঝটিকা পরিদর্শনে বিআরটিএ অফিসে ওবায়দুল কাদের

লোকালয় ডেস্ক : বিআরটিএতে দালাদের দৌরাত্ম্য কমাতে কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেছেন: দালালদের ওষুধ আমার কাছে আছে। কীভাবে তাদের প্রতিকার করতে হয় আমার জানা আছে। এর মধ্যে আমি কিছু পদক্ষেপও নিয়েছি। কিন্তু এদের অনেক শিরা উপশিরা রয়েছে। আমি যখনই এখানে আসি, তারা যেন কীভাবে খবর পেয়ে যায়। আইনটা হোক তারপর আরও বেশি পদক্ষেপ নিতে পারবো।

মঙ্গলবার রাতে মিরপুর বিআরটিএ অফিসে এক ঝটিকা পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

কাদের বলেন: আমি যখন এ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নিই, বিআরটিএর তেমন কিছুই ছিলো না। মোট লোকবলের ১০ ভাগের মাত্র ১ ভাগ লোক ছিলো। একজন মাত্র ম্যাজিস্ট্রেট ছিলেন, এখন তো পাঁচজন আছে। এক সঙ্গে পাঁচ জায়গায় আমরা আদালত পরিচালনা করতে পারি।

 

বিআরটিএর কর্মকর্তা কর্মচারীদের দুর্নীতি প্রসঙ্গে তিনি বলেন: একজন কর্মকর্তা দুর্নীতি করলে আমি সর্বোচ্চ তাকে এখান থেকে ট্রান্সফার করে আরেক জায়গায় পাঠাতে পারি৷ দেখা গেলো সেখানে গিয়ে আরো দুর্নীতি করলো। আমি সেটা না করে তাদের নিয়ন্ত্রণ করছি।

‘এটুকু বলতে পারি ৬০ শতাংশ নিয়ন্ত্রণে এসেছে। আইনটি হলে আরো কঠোর হওয়ার সুযোগ পাবো।’

তিনি আরও বলেন: সারাদেশে বিআরটিএর যতো গুলো অফিস আছে সব গুলোই শুক্রবার বাদে সপ্তাহের অন্যদিন সকাল নয়টা থেকে রাত নয়টা পর্যন্ত খোলা থাকছে। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলে আমি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এমনকি রাত নয়টার পরও যদি কোন মানুষ লাইনে থাকে তার কাজ শেষ করেই কর্মকর্তারা বাড়ি যাবেন।

শুধু মাত্র আজ মঙ্গলবারই মিরপুর বিআরটিএ থেকে ১২০০ যানবাহন ফিটনেস সনদ নিয়েছে বলে সাংবাদিকদের জানান কাদের।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

 
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com