চোর ও ডাকাত আতংকে হবিগঞ্জবাসী

চোর ও ডাকাত আতংকে হবিগঞ্জবাসী
চোর ও ডাকাত আতংকে হবিগঞ্জবাসী

মীর কাদির, হবিগঞ্জঃ হবিগঞ্জে একের পর এক ডাকাতি ও চুরির ঘটনা ঘটছে। এ আতঙ্কে গত কয়েক মাস যাবত নির্ঘুম রাত কাটাতে হচ্ছে হবিগঞ্জ জেলার কয়েকটি উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের বাসিন্দাদের। রাতে পাড়ায় পাড়ায় দলবদ্ধভাবে পাহারা দিতে হচ্ছে। রাত  হলেই পরিবারের লোকজনের মধ্য আতংক বিরাজ করছে।পরিবারের লোক অথবা আত্মীয়স্বজন দরজায় কড়া নাড়া দিলেই ঘরের ভিতর থেকেই বলা হয় কে? কে? উত্তর নিজ লোকের নিশ্চিত হওয়ার পরেই দরজা খুলে দেয়া হচ্ছে। ডাকাত ও চোর আতংক বৃদ্ধ থেকে শিশুদের মাঝেও লক্ষ্য করা যাচ্ছে। প্রতিটি এলাকায় পাহারা থাকা সত্বেও চুরি দমন করা যাচ্ছে না কোনভাবেই। প্রতিনিয়তই বাসা বাড়ি থেকে টাকা, স্বর্ণালংকার, মোটরসাইকেল, মোবাইল, আসবাবপত্র চুরি হয়ে যাচ্ছে। দিন দিন আইন শৃংখলা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

গত ১০ নভেম্বর রাতে দুই নম্বর পুল(বহুলা) এলাকার ‘রহম ভিলা’ নামক একটি বাসার গেইটের তালা ভেঙ্গে দৈনিক লোকালয় বার্তার সম্পাদক এমদাদুল ইসলাম সোহেলের মোটরসাইকেল নিয়ে যায়। ইয়ামাহা ফেজার মডেলের মোটরসাইকেলটির মূল্য ২ লাখ ৭১ হাজার টাকা। প্রায় দুই মাস আগে কিনেছিলেন মোটরসাইকেলটি।

এ ব্যাপারে দৈনিক লোকালয় বার্তার সম্পাদক এমদাদুল ইসলাম সোহেল অজ্ঞাত ব্যাক্তিদের আসামী করে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানায় এক এজাহার দায়ের করেছেন। উক্ত মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আতাউর রহমান বিভিন্নস্থানে অভিযান চালালেও অদ্য পর্যন্ত মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।

এলাকার সচেতন মহল জানান, এত নিরাপত্তা বেষ্টনী থাকা সত্বেও যদি চুরি হয়ে যায় তাহলে নিম্নস্তলের পরিবার কোন নিরাপত্তায় জীবন কাটাবে। ঘর থেকে বের হলেই চোর আতংকে থাকতে হচ্ছে এলাকা থেকে শহরস্থলের জনসাধারনের।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com