সংবাদ শিরোনাম :
হবিগঞ্জে মেয়র প্রার্থী মিজানের কর্মীদের হয়রানীর অভিযোগ করোনায় মৃত স্বজনহীন ব্যক্তির পাশে দাঁড়ানো মানবপ্রেমিকদের সংবর্ধনা জানালো পুনাক। নবীগঞ্জে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষ, অর্ধশতাধিক আহত।। শায়েস্তাগঞ্জে গাঁজাসহ তিন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার। শায়েস্তাগঞ্জে স্কুল ছাত্র তানভীর হত্যার প্রতিবাদে শোকসভা কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালকে আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করা হচ্ছে : আইজিপি। বিদ্রোহীদের জন্য আওয়ামী লীগের দরজা চিরতরে বন্ধ। নানক। কোম্পানীগঞ্জে সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির হত্যায় জড়িতদের গ্রেফতার করে ফাঁসির দাবীতে  গোবিন্দগঞ্জে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত। হবিগঞ্জের বানিয়াচঙ্গে সার্কেল ডে অনুষ্ঠিত। ‌থানার দরজা হবে সেবাগ্রহীতার জন্য উম্মূক্ত- সার্কেলের নবাগত সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মুরাদ 
চুনারুঘাট সীমান্তে চোরাই গরু উদ্ধার করে ১০ হাজার টাকা চাইলেন আজাদ মেম্বার

চুনারুঘাট সীমান্তে চোরাই গরু উদ্ধার করে ১০ হাজার টাকা চাইলেন আজাদ মেম্বার

চুনারুঘাট প্রতিনিধিঃ চোরাই গরু উদ্ধার করে নিজের বাড়িতে রেখে ১০ হাজার টাকা চাইলেন আজাদ মেম্বার। ঘটনাটি হবিগঞ্জের  চুনারুঘাট উপজেলার গাজিপুর সীমান্তে ঘটেছে । গতকাল বুধবার সারাদিন ফেসবুকে বিষয়টি ভাইরাল হয়।

স্থানীয় গাজিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হুমায়ূন কবীর খান ও চুনারুঘাট থানার ওসি শেখ নাজমুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

 

স্থানীয় চেয়ারম্যান ও এলাকাকাসী জানান,১৫ দিন পুর্বে ওই ইউনিয়নের কারিশাবস্তি গ্রামের জৈনক ইউসুফ মিয়ার বাড়ি থেকে গরুটি চুরি হয়।ইউসুফ একই এলাকার আজিজ মিয়ার কাছ থেকে গরুটি ভাগে লালন-পালন করতে নিয়ে ছিলেন। অনেক খুঁজাখুঁজির পর উপজেলার গোয়াছপুর থেকে গরুটি উদ্ধার করেন বলে জানান আজাদ মেম্বার ।কার কাছ থেকে উদ্ধার করেছেন প্রশ্ন করলে কোন সঠিক জবাব দিতে পারেন নি।বিষয়টি তখনই রহস্যজনক মনে হয়।পরে আজাদ মেম্বারের গরুটি ফেরত না দিয়ে গরুর মালিকের নিকট ১০ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করেন। বিষয়টি চেয়ারম্যানের কানে গেলে তিনি রাগান্বিত হয়ে তাৎক্ষনিক অন্যান্য মেম্বার ও গণ্যমান্য ব্যাক্তিদের নিয়ে পরিষদে বৈঠকে করেন।বৈঠকের সিদ্ধান্তনুযায়ী বিষয়টি চুনারুঘাট থানার ওসিকে অবহিত করেন।পরামর্শ অনুযায়ী আজাদ মেম্বারের বাড়ি থেকে গ্রাম পুলিশ দিয়ে গরুটি উদ্ধার করে আজিজ কে ফেরত দেয়া হয়।

পরে আজাদ মেম্বার ভুয়া মালিক সাজিয়ে নিজের স্বাক্ষরিত বিক্রয় রশিদ লিখে গরুটি আটকে রাখার চেষ্টা করে ব্যর্থ হন।যদিও বিক্রয় রশিদ দেয়ার এক্তিয়ার একমাত্র সরকারী ইজারাদারদের। বিষয়টি নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

বিএনপি সমর্থিত আজাদ মেম্বার সরকার দলীয় ক’জন নেতার ছত্র-ছায়ায় এলাকায় রামরাজত্ব কায়েম করার অভিযোগ উঠেছে। স্থানীয় কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধা আক্ষেপ করে বলেন,সে একজন মেম্বার হয়ে ২৪ ঘন্টা মাদকাসক্ত থাকে কিন্তু প্রশাসন কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না।কিছুদিন পুর্বে সে হুকুম দিয়ে একজন মহিলার হাতের রগ কেটে দেয় দুর্বৃত্তরা। সরকারী কর্মসুচির টাকা আত্মসাৎ ,বয়স্ক,বিধবা ও প্রতিবন্ধী ভাতা পাইয়ে দেয়ার কথা বলে টাকা আদায়ের অভিযোগ অনেক পুরানা।নারী কেলেঙ্কারী তার জন্য একটা টেডিশন। কেউ কোন কথা বললে লম্বা একটা দা নিয়ে দৌড়াতে থাকেন। এটাই তার বিশেষত্ব।

আজাদ মেম্বারের অসামাজিক ও অপকর্ম থেকে এলাকাবাসী মুক্তি চায়।

এ ব্যাপারে আজাদ মেম্বার বলেন,তিনি কার কাছ থেকে গরু উদ্ধার করেছেন সেটা জেনে সাংবাদিকদের লাভ কি? দুই টাকার পত্রিকায় লিখে তার কিছুই করা যাবে না।উল্টো স্থানীয় যুবলীগ সেক্রেটারি কে দিয়ে দেখে নেয়ার হুমকি দেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com