সংবাদ শিরোনাম :
চুনারুঘাটে ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে বাচঁলো এক নারী! থানায় মামলা ডায়েরি না করায় শংকিত পরিবার।

চুনারুঘাটে ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে বাচঁলো এক নারী! থানায় মামলা ডায়েরি না করায় শংকিত পরিবার।

চুনারুঘাটে ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে ধর্ষন থেকে বাচঁলো এক নারী! মামলা ডায়েরি না করায় শংকিত পরিবার


চুনারুঘাট প্রতিনিধিঃ চুনারুঘাটে ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে ধর্ষন থেকে বাচঁলো এক নারী।এ ব্যাপারে চুনারুঘাট থানায় অভিযোগ করেছেন ওই নারী। পুলিশ অভিযুক্ত দের ধরতে অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

রবিবার (১৫ নভেম্বর) চুনারুঘাট উপজেলার আহম্মদাবাদ ইউনিয়নের বনগাঁও গ্রামে ঘটনাটি ঘটে।

ওই নারী অভিযোগ পত্রে বলেন বনগাঁও গ্রামের হাজ্বী আব্দুস সাত্তারের পুত্র সিদ্দিকুর রহমান রাজু দীর্ঘদিন ধরে ওই মহিলাকে উত্যক্ত করে আসছিল। রবিবার সকাল ৭ টায় তার ধান ক্ষেতে হাঁস যাওয়ার উসিলা নিয়ে তাদের ঘরে প্রবেশ করে বিধবার মেয়ে (২৭) কে তাকে ধর্ষনের চেষ্টা করে।এসময় ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে রাজু তার নাকে ঘুষি মারলে সে রক্তাক্ত হয়ে মাটিকে পড়ে যায়। তার মা ও বোন বাধা দিলে সে তাদের কে পিঠিয়ে লিলা ফুলা জখম করে। তাদের সুর চিৎকারে লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে চুনারুঘাট হাসপালে ভর্তি করে এবং তার বোন ও মা কে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়। এ সময় অভিযুক্ত রাজুর বড় ভাই নুরুল আমিন কে বিষয়টি জানালে তিনি আরো ক্ষেপে যান এবং অকথ্য ভাষায় গালি দিয়ে কাউকে ধর্ষন চেষ্ঠার কথা প্রকাশ করলে ,পরিবারসহ মেরে ফেলার হুমকি দেন।

পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে প্রাথমিক সত্যতা পেয়েছে।এদিকে আসামী রাজু ও নুরুল আমিন পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়।

চুনারুঘাট থানার ওসি আলী আশরাফ বলেন,অপরাধী যেই হোক তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এদিকে অভিযুক্তরা এলাকার প্রভাবশালী হওয়ায়,এবং মামলা ডায়েরি না হওয়ায়,ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হওয়ার ভয় করছেন পুরুষ শূন্য ওই বিধবার পরিবার। স্থানীয় চেয়ারম্যান সনজু চৌধুরী বলেন,ঘটনা শুনেছি এবং চিকিৎসার জন্য হাসপাতাল পাঠিয়েছি।তবে একটি পুরুষ শূণ্য বিধবার ঘরে প্রবেশ করে মারধোর করা মোটেই ঠিক হয়নি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com