গরুর গোশত খাওয়া ত্যাগ করলে গণপিটুনি বন্ধ হবে: আর এস এস নেতা ইন্দ্রেশ কুমার

গরুর গোশত খাওয়া ত্যাগ করলে গণপিটুনি বন্ধ হবে: আর এস এস নেতা ইন্দ্রেশ কুমার

ভারতে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘ (আর এস এস) নেতা ইন্দ্রেশ কুমার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘ (আর এস এস) নেতা ইন্দ্রেশ কুমার বলেছেন, ‘গরুর গোশত খাওয়া ছেড়ে দিন, তাহলেই গণপিটুনি বন্ধ হয়ে যাবে।’গতকাল (সোমবার) বিজেপিশাসিত ঝাড়খণ্ডে তিনি ওই মন্তব্য করেন।

 

ইন্দ্রেশ কুমার বলেন, ‘অবশ্যই গো-রক্ষা করা এবং গোবরকে সিমেন্ট হিসাবে ব্যবহার করা উচিত। তাহলেই অভাব আর গণপিটুনি থেমে যাবে।’

তার দাবি, ‘মক্কা ও মদিনায় গরু জবাই করা অপরাধ। তাহলে আমরা গরু জবাই বন্ধ করতে অঙ্গীকারবদ্ধ হতে পারি না কেন? গো-রক্ষার ওই প্রতিজ্ঞা করলেই গণপিটুনির সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।’ অন্যদিকে, ‘বিজেপি’র ফায়ারব্র্যান্ড নেতা বিনয় কাটিয়ার বলেছেন, ‘দেশে গরু জবাই বন্ধ না হলে গণপিটুনিও বন্ধ হবে না।’

 

এ প্রসঙ্গে পশ্চিমবঙ্গের জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক মুফতি আব্দুস সালাম আজ (মঙ্গলবার) রেডিও তেহরানকে বলেন, ‘কে কী খাবে, পরবে তা তাদের ব্যক্তিগত অধিকার। আমরা যখন পরাধীন ছিলাম সেসময়েও এ ধরনের কোনো আইন বা নিষেধাজ্ঞা বিদেশি শাসকরা ভারতীয়দের উপরে চাপিয়ে দেয়নি। এরা কী দেশের নাগরিকদের ক্রীতদাস মনে করছে নাকি! এ জায়গায় আমরা কোনো আপস করতে চাই না।  নিজেদের অধিকার, নিজেদের স্বাধীনতা, দেশের স্বাধীনতা, দেশের নাগরিকদের স্বাধীনতার ক্ষেত্রে কোনো আপস করা হবে না।’

 

খাদ্য নিয়ন্ত্রণের বিনিময়ে যারা নিরাপত্তার কথা বলছেন তাদেরকে ওই অধিকার সংবিধানে দেয়া হয়নি। এবং তা আইন বিরোধী ও সংবিধান বিরোধী কথা বলেও মন্তব্য করেন পশ্চিমবঙ্গের জমিয়ত নেতা মুফতি আব্দুস সালাম।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

 
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com