কিডনি নষ্ট হওয়া রশিদের পাশে মাশরাফি

কিডনি নষ্ট হওয়া রশিদের পাশে মাশরাফি

কিডনি নষ্ট হওয়া রশিদের পাশে মাশরাফি
কিডনি নষ্ট হওয়া রশিদের পাশে মাশরাফি

স্পোর্টস্ আপডেট ডেস্ক : এমনি এমনি তো আর বাংলাদেশের মানুষের হৃদয়ে জায়গা করে নেননি মাশরাফি বিন মুর্তাজা। বল হাতে যেমন প্রতিপক্ষ ব্যাটসম্যানকে ঘায়েল করেন, ঠিক তেমনই বিপদগস্থ মানুষের পাশেও দাঁড়ান নড়াইল থেকে সদ্য নির্বাচিত এই সংসদ সদস্য। তার প্রমাণ আরও একবার হাতে নাতেই পাওয়া গেল। দুই কিডনি নষ্ট হওয়ার আব্দুর রশিদের পাশে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিলেন টাইগারদের ওয়ানডে অধিনায়ক।

বর্তমানে ঢাকা পিজি হাসপাতালের চতুর্থতলার সি-ব্লকের ২৭ নং বেডে চিকিৎসাধীন আব্দুর রশিদকে ৫০ হাজার টাকা সহায়তা দিয়েছেন ম্যাশ। এই মুহুর্তে পরিবার নিয়ে ভারত ভ্রমণে রয়েছেন নড়াইল-২ আসন থেকে নির্বাচিত এই সংসদ সদস্য।

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার এই ব্যক্তির দুটি কিডনিই নষ্ট। এটি মাশরাফি জানতে পারেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে। দেরি না কেরে অসুস্থ আব্দুর রশিদকে ৫০ হাজার টাকার ব্যবস্থা করে দেন তিনি। দেশে না থাকলেও অসহায় এ মানুষের সহায়তায় এগিয়ে আসেন নড়াইলের সংসদ সদস্য।

জানাগেছে, লোহাগড়া উপজেলার ডহরপাড়া গ্রামের মোফাজ্জেল হোসেন মোল্যার ছেলে আব্দুর রশিদের দুইটা কিডনি নষ্ট হয়ে গেছে। বর্তমানে ঢাকা পিজি হাসপাতালের চতুর্থতলার সি-ব্লকের ২৭ নং বেডে চিকিৎসাধীন। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন আবদুর রশিদের চিকিৎসায় ৮ থেকে ১০ লাখ টাকা প্রয়োজন।

গত ১১ মার্চ নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এফ এম রোমান রায়হান তার ফেসবুক ওয়ালে আবদুর রশিদের চিকিৎসার জন্য আর্থিক সাহায্য চেয়ে সংসদ সদস্য বরাবর একটি আবেদন করেন। লোহাগড়া উপজেলা ছাত্রলীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এশারতের বড় ভাই আব্দুর রশিদের দুইটি কিডনিই নষ্ট হয়ে গেছে। তার চিকিৎসার জন্য অনেক টাকার প্রয়োজন, যা এই হতদরিদ্র পরিবারের পক্ষে যোগাড় করা সম্ভব নয়। উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করলে তাকে বাঁচানো সম্ভব বলেও উল্লেখ করা হয়।

এসময় নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য ও ক্রিকেট তারকা মাশরাফি বিন মর্তুজা পরিবার নিয়ে দেশের বাইরে অবস্থান করলেও মানবিক বিষয়টি তার চোখ এড়ায়নি। সেখান থেকেই তাৎক্ষনিকভাবে যোগাযোগ করে তিনি ৫০ হাজার টাকার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। পাশাপাশি তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাসও দিয়েছেন।

ছাত্রলীগ নেতা এশারত বলেন, আমার ভাই কি চিকিৎসার অভাবে মরে যাবে? বড় ভাই আব্দুর রশিদের চিকিৎসার জন্য পিতার জায়গা-জমি যা ছিল সবই বিক্রি করে চিকিৎসা চালানো হচ্ছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন ৮ থেকে ১০ লাখ টাকা প্রয়োজন। তার চিকিৎসা করানো মত অর্থ আমাদের নেই।

তিনি আরো বলেন, এমপি সাহেব (মাশরাফি বিন মর্তুজা) ৫০ হাজার টাকা দিচ্ছেন ভাইয়ের চিকিৎসার জন্য। এমপি সাহেবের মত সমাজের বিত্তবানদের তার ভাইয়ের চিকিৎসা জন্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয়ার আহবান জানান তিনি।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য সৌমেন চন্দ্র বসু বলেন, আব্দুর রশিদের চিকিৎসার জন্য ৫০ হাজার টাকা দেয়ার জন্য তার স্বজনদের সাথে যোগাযেগ করা হচ্ছে। দ্রুত সময়ের মধ্যেই তাদের কাছে টাকা পৌঁছে দেয়া হবে।

উল্লেখ্য, গত ৪ মার্চ মাশরাফি বিন মর্তুজা স্ত্রী সন্তানসহ পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ভারতে যান। ১৪ মার্চ তার ঢাকায় ফেরার কথা।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com