সংবাদ শিরোনাম :
মাধবপুরে ভারতীয় মদসহ মাদক কারবারী আটক‌ শীতে করোনার দ্বিতীয় প্রবাহ আঘাত হানার আশঙ্কাঃ মাহবুব আলী। হবিগঞ্জে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ সভায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানকে লাঞ্চিত! পারলে এক দিনের মধ্য পোস্টমর্টেমের রিপোর্ট দেন। ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পুলিশ (আইজিপি), বাংলাদেশ ড. বেনজীর আহমেদ বিপিএম (বার) এর দেয়া গুরুত্বপূর্ণ কিছু তথ্য। বানিয়াচংয়ে দূর্গাপূজার পূজামন্ডপ পরিদর্শন করেছেন উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কাসেম চৌধুরী। প্রতিবন্ধী না হয়েও ভাতা তুলছেন পাইকপাড়া ইউনিয়নের লিলু মিয়া সাংবাদিক সনজব আলী নাতনির রাইসা জন্মদিন। দুর্গাপূজা উপলক্ষ্যে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে বানিয়াচং থানায় পুলিশি মহড়া। হবিগঞ্জে বৃটিশ সৈনিক বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের কান্না কেউ শুনেনি। নেই মাথা গোঁজার ঠাঁই।
কাজ করতে এসে আটকা ৪৩ শ্রমিক, বাড়ি ফিরছেন পুলিশের সহায়তায়

কাজ করতে এসে আটকা ৪৩ শ্রমিক, বাড়ি ফিরছেন পুলিশের সহায়তায়

lokaloy24.com

লোকালয় ডেস্কঃ  কুমিল্লায় কাজ করতে এসে আটকে পড়া ৪৩ শ্রমিক জেলা পুলিশের সহায়তায় বাড়ি ফিরেছেন। তাদের সবার বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার বিভিন্ন উপজেলায়।

দুই থেকে আড়াই মাস আগে কাজের খোঁজে চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে কুমিল্লায় এসেছেন তারা। বেশ কয়েকদিন নিয়মিত কাজকর্ম থাকলেও কিছুদিন পর করোনা সংক্রামণ রোধে লকডাউনের আগে ও পরে সব ধরনের কর্মক্ষেত্র বন্ধ হয়ে পড়ায় তারা কর্মহীন হয়ে পড়েন।

এছাড়া যানবাহন বন্ধ হয়ে যাওয়ায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ না যেতে পেরে কুমিল্লায় আটকা পড়েন।

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় একটি বাস ও সব ধরনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করে জেলা পুলিশের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় কুমিল্লা শাসনগাছা ফ্লাইওভারের পশ্চিম অংশ থেকে ওই ৪৩ শ্রমিক বহনকৃত বাসটি চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করে।

শ্রমিক মো. মোস্তফা বলেন, আমার বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার আজমতপুর। দুই মাস আগে কুমিল্লায় কাজের সন্ধানে আসি। ১৫-১৬দিন ঠিকঠাকভাবে কাজ করেছি। হঠাৎ করোনাভাইরাসের সংক্রামণে সব কিছু বন্ধ হয়ে যাবার ফলে আমি কর্মহীন হয়ে পড়ি।

জমানো টাকা বাড়িতে পরিবারের সদস্যদের জন্য পাঠিয়ে দিয়ে বিপাকে পড়ে গেছি। খাওয়া-দাওয়া ও বাসা ভাড়া নিয়ে আর্থিক সংকটে আছি। পরবর্তীতে চাঁপাইনবাবগঞ্জের সন্তান কুমিল্লার এসপি সৈয়দ নুরুল ইসলামের কাছে বাড়ি ফিরে যাওয়ার জন্য সহযোগিতার আবেদন করলে তিনি এই ব্যবস্থা করে দেন। আমি পুলিশের সহযোগিতায় বাড়িতে নিজের স্ত্রী ও সন্তানের কাছে ফিরতে পারছি এটা আনন্দের।

শ্রমিক পলাশ, তৈহিদ, শফিকুল ইসলাম ও লোকমান আলী একই কথা বলেন।

এ সময় কুমিল্লার এসপি সৈয়দ নুরুল ইসলাম, অ্যাডিশনাল এসপি আবদুল্লাহ আল-মামুন, সাখাওয়াত হোসেন, নাজমুল হাসানসহ অন্যান্য পুলিশ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com