‘কখন ডাক্তার আসবে তা আল্লাহই জানেন’

‘কখন ডাক্তার আসবে তা আল্লাহই জানেন’

'কখন ডাক্তার আসবে তা আল্লাহই জানেন'
'কখন ডাক্তার আসবে তা আল্লাহই জানেন'

লোকালয় ডেস্কঃ ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সম্প্রতি ৩০ শয্যা হতে উন্নীত করে ৫০ শয্যাবিশিষ্ট করা হয়েছে। বিধান মতে ১০ জন চিকিৎসক থাকার কথা থাকলেও আছেন ৭ জন। তার মধ্যে দু’জন রয়েছেন ডেপুটেসনে। একজন হচ্ছেন চরঝাউকান্দা ইউনিয়নের কমিউনিটি ক্লিনিকের চিকিৎসক। বাকি ৪ জনও নিয়মিত নন।

রবিবার সকাল ১০টার দিকে চরভদ্রাসন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একমাত্র উপসহকারি কমিউনিটি মেডিকেল কর্মকর্তা (সেকমো) জাহিদুল ইসলাম ছাড়া অন্য কোন চিকিৎসকের দেখা মেলেনি। টিকিট নিয়ে বসে রয়েছেন রোগীরা।

চিকিৎসা সেবা নিতে আসা এমপি ডাঙ্গী গ্রামের তারা মিয়ার স্ত্রী মনোয়ারা বেগম বলেন, অসুস্থ নাতিকে নিয়ে দীর্ঘক্ষণ ধরে বসে আছি। কখন ডাক্তার আসবে তা আল্লাহই জানেন। হাসপাতালে এলেই এমন ভোগান্তির স্বীকার হতে হয়।

১০টার পরে আসলেন স্বাস্থ্য ও পরিবার-পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবুল কালাম। ১০টা ৩০ মিনিটেও কোন চিকিৎসক না আসার কারণ জানতে চাইলে তিনি জানান, নিয়মিত চিকিৎসক আছে ৩ জন। এর মাঝে একজন মাতৃত্বজনিত কারণে ঠিক সময়ে আসতে পারে না। অন্যদের কিছু বললেই বলে বদলি করে দেন। তখন আমার কিছু করার থাকে না বাধ্য হয়েই তাদের নিয়ন্ত্রণ করতে পারি না। দু’একবার বেতন ভাতা আটকে দিয়েছি লাভ হয়নি। তখন কোন না কোন সুপারিশে ছেড়ে দিতে হয়েছে। জনবল বৃদ্ধির জন্য উপজেলা মাসিক সভায় বহুবার বলেছি কোন প্রতিকার পাইনি। এ ছাড়া এক্সরে মেশিন নষ্ট, প্যাথলজি থাকলেও টেকনিশিয়ান না থাকায় সেবা দিতে পারছি না।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com