ইউএনও’র ফেসবুক পোস্টে পাল্টে গেল ভ্যানচালকের জীবন

ইউএনও’র ফেসবুক পোস্টে পাল্টে গেল ভ্যানচালকের জীবন

lokaloy24.com

লোকালয় ডেস্কঃ  ইউএনও’র ফেসবুক পোস্টে পাল্টে গেল এক ভ্যানচালকের জীবন। সহায় সম্বলহীন গরিব এ মানুষটির এখন অনেক কিছুই হতে চলেছে। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটেছে মেহেরপুরের মুজিবনগরে।

মুজবনগরের ইউএনও ওসমান গনি একই উপজেলার সোনাপুর গ্রামের ভ্যানচালক ইসলাম শেখকে নিয়ে সম্প্রতি ফেসবুকে একটি পোস্ট দেন। এরপর দ্রুত ভাগ্যের পরিবর্তন হতে চলেছে ওই ভ্যানচালকের। ইউএনও “সাজা দেবো; নাকি সাজা নেবো” এমন মন্তব্য ওই পোস্ট করেন। যার ফলে ওই ভ্যানচালক পেতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রীর জমি আছে, ঘর নেই প্রকল্পের একটি ঘরসহ বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা।

গত ১৮ এপ্রিল ওসমান গনি একটি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করতে যান সোনাপুর গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের ভ্যানচালক ইসলাম শেখের বাড়ি ও পবিারের লোকজনকে দেখে হতাশ হন। তিনি দেখেন ইসলাম শেখ একটি মাত্র বেড়ার কুড়ে ঘরে বিয়ের উপযুক্ত দুই মেয়ে ও এক ছেলেসহ স্বামী-স্ত্রী মিলে পাঁচজনে অমানবিকভাবে বসবাস করছেন। ওই ঘর টুকুর মধ্যেই রান্না-খাওয়া ও থাকা-ঘুমানো।

এর উপর ভাঙা টিনের এ ঘরটির বেড়ার ফাঁক দিয়ে বিড়াল-কুকুর ও সাপ-পোকামাকড় সহজে ঢুকতে পারে। তাই ভগ্নস্বাস্থ্য নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকা ভ্যানচালক ইসলাম শেখকে দেখে তিনি সাজা না দিয়ে ফিরে আসেন এবং ওই দিন সন্ধ্যায় তার ফেসবুকে সচিত্র পোস্ট দেন “সাজা দেবো; নাকি সাজা নেবো”? তিনি ফেসবুকে এ কথাও লেখেন তার কাছ থেকে জরিমানা আদায় না করে বরং কিছু টাকা তার পরিবারের হাতে তুলে দেয়া উচিত। এছাড়া তিনি ওই পরিবারকে যতটুকু সম্ভাব্য সহযোগিতা দেয়ার কথা চিন্তা করেন।

এদিকে তার ফেসবুকের এ পোস্টটি ভাইরাল হয়। চোখে পড়ে সরকারের জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেনের। তিনি অসহায় ভ্যানচালক ইসলাম শেখকে প্রধানমন্ত্রীর জমি আছে, ঘর নেই প্রকল্পের একটি ঘরসহ বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা প্রদানের সিদ্ধান্ত নেন। এ ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে মুজিবনগরের ইউএনও’কেও নির্দেশ দেন তিনি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com