আসাম সীমান্তে ৩ বাংলাদেশীকে হত্যা

আসাম সীমান্তে ৩ বাংলাদেশীকে হত্যা

আসামের দক্ষিণাঞ্চলে করিমগঞ্জ জেলায় তিন বাংলাদেশীকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। গতকাল শনিবার (১৮ জুলাই) এ ঘটনা ঘটে। ওই দলের আরো চান জন পালিয়ে বেঁচে গেছে।

জেলার পুলিশ সুপার কুমার সঞ্জিত কৃষ্ণ ভারতীয় গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ঘটনাটি ঘটেছে বিএসএফের ১৩৪ ব্যাটালিয়নের ই কোম্পানির কাছেই বগ্রিজান টি এস্টেটে। সেখানে থেকে বাংলাদেশের সবচেয়ে নিকটবর্তী পুলিশ আউটপোস্টের দূরত্ব মাত্র দেড় কিলোমিটার।

ওই পুলিশ কর্মকর্তার দাবি, তারা তদন্ত করে দেখেছেন ওই বাংলাদেশীরা সীমান্ত পেরিয়ে বগ্রিজান এলাকায় গরু চুরির করার উদ্দেশ্য নিয়ে এসেছিলেন। স্থানীয়রা তাদের গণপিটুনি দিলে ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়। আজ করিমগঞ্জ জেলা সদরদপ্তর থেকে ভারতীয় পত্রিকা দ্য হিন্দুকে এমন কথাই বলেছেন এসপি সঞ্জিত।

তিনি আরো জানান, নিহত ওই তিন জনের কাছে বাংলাদেশী বিস্কুট, রুটি, রশি, ব্যাগ, তার ও বেড়া কাটার যন্ত্র পাওয়া গেছে। মৃতদেহগুলো উদ্ধার করা হয়েছে। বর্তমানে তা বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) কাছে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে।

আসামের করিমগঞ্জ জেলায় দুই মাসেরও কম সময়ের মধ্যে বাংলাদেশীকে গণপিটুনিতে হত্যার ঘটনা এ নিয়ে দুটি ঘটল। ভারতীয় পুলিশ ও বিএসএফের ভাষ্যমতে, গত ১ জুন ৪৩ বছর বয়সী এক বাংলাদেশীকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। তিনি আরো তিন বাংলাদেশী ও দুই ভারতীয়র সঙ্গে গরু চুরি করতে এসেছিলেন বলে দাবি করা হচ্ছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com