আলোচনা যখন তুঙ্গে তখন মুখ খুললেন সাকিব…

আলোচনা যখন তুঙ্গে তখন মুখ খুললেন সাকিব…

খেলাধুলা ডেস্ক : হঠাৎ করেই মাঠের বাইরের ইস্যু নিয়ে বেশ আলোচিত সাকিব আল হাসান। নিরাপদ সড়কের দাবিতে প্রতিবাদ করতে থাকা শিক্ষার্থীদের ঘরে ফিরে যাওয়ার অনুরোধ করাতে অনেকেই সমালোচনা করেছেন। তারপর সমর্থকদের দিকে সাকিবের তেড়ে যাওয়া একটি ভিডিও রীতিমতো ভাইরাল হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই বলাবলি করছিলেন, নিরাপদ সড়কের দাবিতে প্ল্যাকার্ড নিয়ে থাকা এক সমর্থকের দিকে তেড়ে যান সাকিব।

কিন্তু আসল ঘটনা সেটা নয়। নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে, উইন্ডিজের বিপক্ষে শেষ টি-টোয়েন্টি জিতে সতীর্থদের সঙ্গে রুমে ফিরছিলেন ক্লান্ত সাকিব। এ সময় অনেক সমর্থকের সেলফি, অটোগ্রাফের আবদারও মেটাতে হয় তাকে। এক সমর্থক সেলফি, অটোগ্রাফের পর ভিডিও করতে চান। সাকিব ‘না’ করে সোজা হেঁটে যান। যাতে সাকিবের উদ্দেশ্যে অশালীন ভাষা ছুটে দেন ওই সমর্থক। টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক চটে যান ওই কারণেই।

কিন্তু অনেকে আসল ঘটনা না যেনে অন্যভাবে দেখছেন বিষয়টিকে। এসব নিয়ে আলোচনা যখন তুঙ্গে তখন মুখ খুললেন সাকিব নিজেও। নিজের অফিসিয়াল ফেসবুকে লম্বা এক বিবৃতি দিয়েছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। টোয়েন্টিফোর লাইভ নিউজপেপারের পাঠকদের জন্য সেটি হুবহু তুলে ধরা হলো-

‘আমার প্রিয় ভক্ত এবং অনুসারীদের উদ্দেশ্য করে কিছু কথা বলতে চাই। সম্প্রতি আমাকে নিয়ে একটি ভিডিও আপলোড করা হয়েছে যেখানে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের পর লবিতে আমাকে এবং আমার একজন তথাকথিত ‘ফ্যান’ এর সাথে তর্ক-বিতর্ক করতে দেখা যায়। এই ক্লিপটি সম্পূর্ণ ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে যা প্রকৃত ঘটনা প্রকাশ করে না।

পর পর ম্যাচ থাকায় আমি এবং আমার সহকর্মী বেশ ক্লান্ত ছিলাম এবং আমরা আমাদের রুমে ফিরে যাচ্ছিলাম। আমরা আমাদের নিজস্ব সরঞ্জাম ও ব্যাগ বহন করেছিলাম তাই আমাদের হাত পূর্ণ ছিল যা কোন ভাবেই অটোগ্রাফ দেয়ার অবস্থা ছিল না। আমরা সর্বদাই আমাদের ভক্তদের সাথে সময় কাটাতে পছন্দ করি এবং তাদের সাথে ছবি তুলে, অটোগ্রাফ দিয়ে মুহূর্তগুলি ভাগ করে নেয়ার চেষ্টা করি। কিন্তু ভক্তদেরও বুঝতে হবে যে আমরাও মানুষ। আমরা মাঠে একটা বিজয় অর্জনের জন্য প্রাণপণে লড়াই করি। আমাদের কি ব্যস্ত কিংবা ক্লান্ত অনুভব করার অনুমতি নেই? আমরা আপনাদের সমর্থন বুঝি এবং প্রশংসা করি সব সময় এবং চেষ্টা করি আপনাদের সমর্থনের প্রতিদান যেন আমরা মাঠে ভাল খেলার মাধ্যমে দিতে পারি। কিন্তু মাঝে মাঝে আমাদের এই কঠিন পরিশ্রম এবং কঠোর চেষ্টার সাথে সব সময় নিজেকে গুছিয়ে রাখা কষ্টকর হয়ে পড়ে।

আমার আপনাদের কাছে বিনীত অনুরোধ থাকবে যে আমাদের মধ্যে কেউ যদি আপনাদের অনুরোধ না রাখতে পারি তবে তা ব্যক্তিগতভাবে নিবেন না কারণ আমরা যে পরিস্থিতির মধ্যে রয়েছি তা হয়তো আপনি যা দেখছেন তা থেকে ভিন্ন হতে পারে। হুটহাট আমাদের পরিস্থিতি বিবেচনা না করে কিংবা আমরা কেমন মুডে আছি তা বোঝার চেষ্টা ছাড়াই কোন সিদ্ধান্ত বা মতামত দিতে ব্যস্ত হয়ে পড়বেন না।

আমি আমার ভক্তদের অসম্ভব ভালোবাসি এবং আমি মাঠে তাদের জন্যই খেলি সেটা জাতীয় দলে হোক কিংবা কোন লিগের জন্য হোক। একই সাথে আমি আমার ভক্তদের কাছ থেকে সম্মান, ভালোবাসা এবং তারা আমাকে বুঝবে এমনটাই আশা করি। আমি জানি কিছু যারা হয়তো আমাকে ফলো করে অথবা করে না, কিন্তু সর্বদা ছোট ছোট বিষয়ে আমাকে নিচু করতে পছন্দ করে। তাদের উদ্ধেশ্যে বলতে চাই আমাদের থেকে ভালো কিছু প্রত্যাশা করতে হলে এই নিচু মানসিকতার পরিবর্তন প্রয়োজন। প্রত্যেকটা ম্যাচে আমরা এমনিতেই অনেক বেশি চাপে থাকি। নতুন কোন চাপ প্রয়োগ না করার জন্যে বিশেষ অনুরোধ করা হলো। আর এই মানসিকতার বাইরে যারা আছে আমি সর্বদা তাদের পাশে আছি।

সবার জন্যে আমার তরফ থেকে ভালোবাসা রইলো – সাকিব।’

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

 
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com