আন্ডারওয়্যার আর একটি গেঞ্জি ছাড়া অর্ধগলিত লাশের শরীরে আর কিছুই ছিল না

আন্ডারওয়্যার আর একটি গেঞ্জি ছাড়া অর্ধগলিত লাশের শরীরে আর কিছুই ছিল না

আন্ডারওয়্যার আর একটি গেঞ্জি ছাড়া অর্ধগলিত লাশের শরীরে আর কিছুই ছিল না
আন্ডারওয়্যার আর একটি গেঞ্জি ছাড়া অর্ধগলিত লাশের শরীরে আর কিছুই ছিল না

বান্দরবান প্রতিনিধি : বান্দরবানে অপহৃত আওয়ামী লীগ নেতা চ থোয়াই মং মার্মার অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার দুপুরে সদর উপজেলার রাজবিলা ইউনিয়নের জর্দান পাড়া এলাকার গহিন জঙ্গল থেকে অপহরণের ৩ দিন পর তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, শনিবার দুপুরে রাজবিলা ইউনিয়নের জর্দান পাড়া এলাকার জঙ্গলে একটি লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ও আত্মীয়স্বজন ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ শনাক্ত করে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বান্দরবান সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে।

বান্দরবান সদর থানার অফিসার্স ইনচার্জ শহিদুল ইসলাম চৌধুরী জানান, অপহৃত চ থোয়াই মং মার্মার লাশ পাওয়া গেছে। জর্দান পাড়ার জঙ্গলে স্থানীয়রা একটি লাশ দেখতে পেয়ে খবর দিলে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। সেখানে তার আত্মীয়স্বজন ও দলীয় নেতাকর্মীরাও ছিল। তারা সবাই লাশটি দেখে চিনতে পারে।

লাশটির পড়নে আন্ডারওয়্যার আর একটি গেঞ্জি ছাড়া আর কিছু ছিল না। শরীরটি ছিল অর্ধগলিত।

এর আগে গত বুধবার রাত ৯ টার দিকে সময় কয়েক জন অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী বান্দরবান পৌর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সাবেক পৌর কমিশনার চ থোয়াই মং মার্মাকে তার খামারবাড়ি থেকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এর প্রতিবাদে শহরে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। এ ঘটনায় আওয়ামী লীগ জনসংহতি সমিতি জেএসএসকে দায়ী করে।

এ ঘটনার আগে গত ১৭ই মে কুহালং ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের আরেক কর্মীকে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। প্রসঙ্গত, গত ৯ই মে ওই এলাকায় সন্ত্রাসীরা জনসংহতি সমিতির সমর্থক জয় মনি তঞ্চঙ্গ্যাকে গুলি করে হত্যা করে। ৭ই মে সন্ত্রাসীরা জনসংহতি সমিতির কর্মী বিনয় তঞ্চঙ্গ্যাকে গুলি করে হত্যা করে। এ ছাড়া অপহরণ করা হয় পুরাধন তংচঙ্গা নামের অপর এক কর্মীকে। এখনো তার কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com