আতঙ্কের জনপদ কোম্পানীগঞ্জ, ৩০০ পুলিশ ১৬ র‌্যাব মোতায়েন।

আতঙ্কের জনপদ কোম্পানীগঞ্জ, ৩০০ পুলিশ ১৬ র‌্যাব মোতায়েন।

আতঙ্কের জনপদ কোম্পানীগঞ্জ, ৩০০ পুলিশ ১৬ র‌্যাব মোতায়েন।

 

লোকালয় ডেস্কঃ আতঙ্কের জনপদে পরিণত হয়েছে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ। গত তিন মাস ধরে স্থানীয় আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের মধ্যে সাতটি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। নিহত হয়েছেন সাংবাদিকসহ দুজন। আতঙ্কের জনপদ এখন কঠোর অবস্থানে রয়েছে প্রশাসন। নতুন করে যেন আর কোনো সহিংসতার ঘটনা না ঘটে সেজন্য মোতায়েন করা হয়েছে ৩০০ পুলিশ এবং ১৬ র‌্যাব সদস্য।

 

জেলা পুলিশের পাশাপাশি রাঙামাটি থেকে আনা হয়েছে ২০০ পুলিশ সদস্য। রয়েছেন পুলিশের একজন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এবং প্রশাসনের একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) সকাল থেকে বসুরহাটের গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে অবস্থান নিয়েছেন পুলিশ সদস্যরা।

 

এদিকে একাধিক মামলায় গ্রেফতার আতঙ্কে পুরুষশূন্য কোম্পানীগঞ্জ। এ অবস্থায় স্থবির হয়ে পড়েছে স্থানীয় ব্যবসা-বাণিজ্য। দ্রুত পরিস্থিতির উন্নতি চান আতঙ্কিত সাধারণ মানুষ।

 

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভা নির্বাচন কেন্দ্র করে রাজনৈতিক উত্তাপ ছড়াতে শুরু করে কোম্পানীগঞ্জে। এরই মধ্যে গত ১৯ ফেব্রুয়ারি কোম্পানীগঞ্জের চাপরাশির হাট পূর্ব বাজারে মেয়র আবদুল কাদের মির্জা ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের সমর্থকদের মধ্যে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির নিহত হন।

 

এরপর থেকে পাল্টাপাল্টি কর্মসূচিতে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে বসুরহাট পৌর এলাকা। মঙ্গলবারও দুই পক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহতসহ অর্ধশত আহত হয়েছেন। একের পর এক হামলা, ভাঙচুর ও সংঘর্ষের ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন এলাকাবাসী।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com