আজমিরীগঞ্জে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষন, প্রেমিকজুটি আটক

আজমিরীগঞ্জে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষন, প্রেমিকজুটি আটক

নিজস্ব প্রতিনিধি- হবিগঞ্জ আজমিরীগঞ্জে বিয়ের প্রলোভন সপ্তদশী প্রেমিকা যুবতিকে ধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে বিবাহিত প্রেমিকের বিরুদ্ধে। এদিকে প্রেমিকজুটিকে আটক করেছে পুলিশ। প্রেমিক সহ অজ্ঞাত আরও ৩/৪ জনকে আসামি করে থানায় একটি ধর্ষন মামলা দায়ের করেছে প্রেমিকা।

জানা যায়, আজমিরীগঞ্জ সদর ইউনিয়নের বিরাট উজানপাড়া গ্রামের বাসিন্দা মোঃ আবু বক্কর মিয়ার পুত্র ও বিবাহিত যুবক সুজন মিয়া (২১)’র সহিত মোবাইলের ক্রস কানেকশনের মাধ্যমে অনুমানিক ৬ মাস পূর্বে একই এলাকার অর্থাৎ শিবপাশার সিকান্দরপুর গ্রামের বাসিন্দা মৃত- আকিম উদ্দিন মিয়ার মেয়ে মোছাঃ স্বর্ণা আক্তার (১৭) সহিত পরিচয় হয়। এহেন পরিচিতির সুবাদে সুজন ও স্বর্ণা মোবাইল ফোনে প্রতিদিন দীর্ঘ ব্যস্ত সময় অতিবাহিত করত। একে অপরকে প্রেম নিবেদন করলে, উভয় পক্ষই মনের দিক থেকে বিষয়টি মেনে নেয়। এরই সুবাদে দুজন দুজনাকে আরও কাছে পেতে মরিয়া হয়ে উঠে। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল বৃহস্পতিবার বিবাহিত যুবক প্রেমিক সুজন একটি টমটম রিজার্ভ করে
শিবপাশার সিকান্দরপুর এলাকায় গিয়ে প্রেমিকা স্বর্ণা’র সহিত দেখা করতে তার বাড়িতে উঠে। এক পর্যায়ে উভয়ে অনৈতিক কাজে লিপ্ত হয়। গ্রামবাসী বিষয়টি আঁচ করতে পেয়ে প্রেমিক প্রেমিকা উভয়কে আটক করে ফাঁড়িতে খবর দেয়। একই দিন বিকাল অনুমানিক সাড়ে ৪ টায় পুলিশ ঘটনাস্হল থেকে প্রেমিকজুটিকে আটক করে শিবপাশা পুলিশ ফাঁড়িতে নিয়ে আসে। পর সন্ধ্যা অনুমানিক ৭ টায় তাদের আজমিরীগঞ্জ থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। এদিকে প্রেমিকা স্বর্ণা আক্তার বাদি হয়ে প্রেমিক সুজন ও সহযোগী একজন সহ অজ্ঞাত আরও ৩/৪ জনকে আসামি করে আজমিরীগঞ্জ থানায় একটি ধর্ষন মামলা দায়ের করে। আজ শুক্রবার ধর্ষণের শিকার প্রেমিকা স্বর্ণাকে ডাক্তারি পরীক্ষা করাতে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে প্রেরণের কথা রয়েছে। উল্লেখ্য কথিত প্রেমিক সুজন অনুমানিক প্রায় ১০ মাস পূর্বে সুনামগঞ্জের শাল্লায় বিয়ে করে। তার স্ত্রী বর্তমানে ৮ মাসের অন্তঃস্বত্বা বলে জানা গেছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com