সংবাদ শিরোনাম :
আজমিরিগঞ্জ কালনী কুশিয়ারা নদীতে ব্যাপক ভাঙ্গন বানিয়াচং ক্রিকেট ক্লাবের নয়া কমিটির অভিষেক ও পরামর্শ সভা অনুষ্ঠিত  ঠাকুরগাঁওয়ে জ্বালানি তেল  সংকট! পীরগঞ্জে ম্যাটস্ এন্ড নার্সিং ইনস্টিটিউটের উদ্বোধন করেন–বিচারপতি মোঃ নজরুল ইসলাম তালুকদার ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মালদ্বীপ প্রবাসীদের ক্যাপ্টেন এ বি তাজুল ইসলাম (অব.) এম পি’র জন্মদিন পালন  সায়হাম গ্রুপের উদ্যোগে ২০ হাজার দরিদ্রের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরনের উদ্যোগ বাংলাদেশ ও যুক্তরাজ্যেকূটনীতি এবং মানবাধিকার সংস্থার নেতা নির্বাচিত হলেন সিলেটের রাকিব রুহেল ইভটিজিং এর প্রতিবাদ করায় ৩ ছাত্রের উপর মধ্যযুগীয় কায়দায় হামলা ব্র্যাথওয়েট হতে পারলেন না ‘ট্র্যাজিক হিরো’ পাওয়েল জলবায়ু অর্থ চুক্তিতে বাধা হতে পারে ভূরাজনীতি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
আগামী বছর নাগাদ ২১ কোটি টিকা

আগামী বছর নাগাদ ২১ কোটি টিকা

http://lokaloy24.com
http://lokaloy24.com

লোকালয় ডেস্ক:বাংলাদেশ সরকারের হাতে এক কোটির বেশি কভিড-১৯ প্রতিরোধী টিকা রয়েছে। আগামী মাসের মধ্যে চলে আসবে আরো দুই কোটি ডোজ টিকা। বিভিন্ন উৎস থেকে টিকা সংগ্রহের যে উদ্যোগ সরকার নিয়েছে, তা সফল হলে আগামী বছরের প্রথম নাগাদ দেশে চলে আসবে টিকার ২১ কোটি ডোজ। আর এ টিকা দিয়ে দেশের ৮০ শতাংশ মানুষকে কভিড-১৯ প্রতিরোধী টিকা কার্যক্রমের আওতায় আনা সম্ভব বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

গতকাল জাপান থেকে দেশে এসেছে কোভ্যাক্স ফ্যাসিলিটির আওতায় আড়াই লাখ ডোজ অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা। এছাড়া চীন থেকে চলতি মাসেই আসছে সিনোফার্মের ৩০ লাখ ডোজ। ২৬ বা ২৭ জুলাই এ টিকা দেশে পৌঁছতে পারে। এছাড়া শিগগিরই চীন থেকে আসবে তিন কোটি, অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা আসবে তিন কোটি, সাত কোটি পাওয়া যাবে কোভ্যাক্স ফ্যাসিলিটি থেকে, এক কোটি রাশিয়া থেকে ও সাত কোটি আসবে জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা।

দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে নির্বিঘ্ন রাখতে ও অধিকাংশ নাগরিককে টিকার আওতায় আনতে এখন থেকে ১৮ বছরের বেশি সব নাগরিককে টিকার আওতায় আনার পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে সরকার। এরই মধ্যে সুরক্ষা অ্যাপে যেন ১৮ বছরের বেশি বয়সীরা নিবন্ধন করতে পারেন সে বিষয়ে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

গতকাল বিকালে বাংলাদেশ প্রাইভেট মেডিকেল কলেজ অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যভুক্ত প্রতিষ্ঠান ও হাসপাতালগুলোর সঙ্গে এক অনলাইন মতবিনিময় সভায় এসব কথা জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী। করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি প্রতিরোধ, অক্সিজেন সংকট, হাসপাতালের সুযোগ-সুবিধা ও শয্যা সংখ্যা বৃদ্ধি বিষয়ে অনুষ্ঠানে আলোচনা করা হয়।

এ সময় মন্ত্রী বলেন, এ পর্যন্ত এক কোটির বেশি মানুষ টিকা পেয়েছে। সবাইকে টিকার আওতায় আনতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। এরই মধ্যে পর্যাপ্তসংখ্যক টিকা এসে পৌঁছেছে। আমরা যেসব দেশে অর্ডার করেছি ও প্রতিশ্রুতি পেয়েছি, তার সংখ্যা কিন্তু অনেক। ২১ কোটি টিকার ব্যবস্থা করা হয়েছে। সময়মতো এসব টিকা হাতে পেলে বাংলাদেশ কোনো দেশ থেকে টিকার ক্ষেত্রে পিছিয়ে থাকবে না। এসব দিয়ে দেশের ৮০ শতাংশ জনগোষ্ঠীকে টিকার আওতায় আনা সম্ভব হবে।

মাইনাস ৭০ থেকে মাইনাস ৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় টিকা সংরক্ষণ করতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) মাধ্যমে ২৬টি আল্ট্রা কোল্ড ফ্রিজার আনা হচ্ছে উল্লেখ করে জাহিদ মালেক বলেন, বিভিন্ন দেশ থেকে নতুন করে আরো যে টিকা আসবে, সেগুলো সংরক্ষণ করতে কোনো সমস্যা হবে না। গ্রামের বয়স্ক লোকজনকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টিকা দেয়ার বিষয়ে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে। তাদের পরিবারের ১৮ বছরের বেশি বয়সীদেরও টিকা দেয়া হবে।

দেশে দৈনিক মেডিকেল অক্সিজেনের চাহিদা বেড়ে ২৭০ টনে পৌঁছেছে উল্লেখ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে সাধারণত দৈনিক ৬০ থেকে ৭০ টন অক্সিজেনের প্রয়োজন হয়। এখন এ চাহিদা বেড়ে ২৭০ টনে দাঁড়িয়েছে। আগস্টের মধ্যে দেশের ৪০টি হাসপাতালে ৪০টি অক্সিজেন জেনারেটর বসানো হবে। তখন আমাদের আর অক্সিজেনের ঘাটতি থাকবে না।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশিদ আলম অক্সিজেন সরবরাহ প্রসঙ্গে জানান, ভারত থেকে পর্যাপ্ত পরিমাণ অক্সিজেন আমদানি করা হবে। সেখান থেকে সপ্তাহে দুবার ৪০০ টন অক্সিজেন আমদানি করা হবে। প্রতি মাসে ১ হাজার ৬০০ টন অক্সিজেন আমদানি করা হবে। ফলে অক্সিজেন সংকট দেখা দেবে না।

মতবিনিময়ে আরো অংশ নেন বাংলাদেশ প্রাইভেট মেডিকেল কলেজ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি এমএ মুবিন খান ও সাধারণ সম্পাদক ডা. আনোয়ার হোসেন খান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য অধ্যাপক ডা. শারফুদ্দিন আহমেদসহ অন্যরা।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com