সংবাদ শিরোনাম :
আগামী কাল শনিবার ইভিএম পদ্ধতিতে প্রথম চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচন।

আগামী কাল শনিবার ইভিএম পদ্ধতিতে প্রথম চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচন।

আগামী কাল শনিবার ইভিএম পদ্ধতিতে প্রথম চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচন

 

লোকালয় ডেস্কঃ ইভিএম পদ্ধতিতে এ প্রথম চাঁদপুর পৌরসভার সাধারণ নির্বাচন শনিবার (১০ অক্টোবর) অনুষ্ঠিত হবে। এদিন সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত পৌরসভার ১৫ ওয়ার্ডে ৫২টি ভোট কেন্দ্রে চলবে ভোট গ্রহন। নিরাপত্তা ও শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রেখে নির্বাচন গ্রহনে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছেন নির্বাচন কমিশন, জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসন।

 

নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন ৩জন মেয়র। এরা হলেন- আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা মার্কার মো. জিল্লুর রহমান জুয়েল, বিএনপি মনোনীত ধানের শীষ মার্কার আক্তার হোসেন মাঝি ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত হাতপাখা মার্কার মামুনুর রশিদ বেলাল। সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী ৫০ ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী ১৪জন। সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ড সংখ্যা ৫টি, ভোট কক্ষ সর্বমোট ৩০৫টি ও অস্থায়ী ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ২৩টি।

 

চাঁদপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানাগেছে, চাঁদপুরে এ দ্বিতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে ইভিএম পদ্ধতিতে। এর পূর্বে হাইমচর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ইভিএম পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হয়। গত বুধবার চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনের প্রস্তুতি ভোট দেয়ার পদ্ধতি দেখানোর জন্য বিভিন্ন ভোট কেন্দ্রে মক ভোটিং হয় এবং নির্বাচন কমিশন থেকে মাইকিং করে ভোটারদের জানানো হয়। নির্বাচনে ভোটার সংখ্যার মধ্যে (ক) পুরুষ ৫৮হাজার ১শ’ ৪৪জন। (খ) মহিলা ভোটার ৫৮ হাজার ৩৪৩জন। সর্বমোট ভোটার সংখ্যা ১লাখ ১৬ হাজার ৪শ’ ৮৭জন।

 

নির্বাচন সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে সম্পন্ন করতে সকল ধরণের প্রস্তুতি গ্রহন করেছেন বলে জানিয়েছেন চাঁদপুর নির্বাচন কমিশন ও রিটার্নিং অফিসার মো. তোফায়েল। তিনি বলেন, নিয়মানুযায়ী বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) দিনগত রাত ১২টার মধ্যে সকল ধরণের নির্বাচনী প্রচারণা বন্ধ হয়েছে। নির্বাচন শুরুর ৩২ ঘন্টা পূর্বে এবং ভোট গ্রহনের ৪৮ঘন্টা পর পর্যন্ত সকল প্রকার নির্বাচনি প্রচার কার্যক্রম বন্ধ থাকবে।

 

তিনি আরো বলেন, ভোট কেন্দ্রে ও নির্বাচনী এলাকায় ভোট গ্রহনের দিন এবং পূর্ববর্তী ২ দিন ও পরবর্তী ১ দিন মোট ৪ দিনের জন্য আইন শৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন থাকবে।

 

চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) মোহাম্মদ জামাল হোসেন বলেন, নির্বাচনের ১৫টি ওয়ার্ডে জেলা প্রশাসনের ১৫জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন। এছাড়াও দায়িত্ব পালন করবেন পুলিশ, এপিবিএন ও ব্যাটেলিয়ান আনসারের সমন্বয়ে মোবাইল ফোর্স ৩টি, স্ট্রাইকিং ফোর্স ১টি। র‌্যাবের ৬টি মোবাইল টিম ও বর্ডারগার্ড বাংলাদেশের ২ প্লাটুন সদস্য।

 

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com