আইয়্যামে বিজের রোজা রাখার ফজিলত

আইয়্যামে বিজের রোজা রাখার ফজিলত

আইয়্যামে বিজের রোজা রাখার ফজিলত
আইয়্যামে বিজের রোজা রাখার ফজিলত

লোকালয় ডেস্ক: রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উম্মতের জন্য প্রত্যেক আরবি মাসের মধ্যভাগে তিনদিন রোজা রাখার তাগিদ দিয়েছেন। আর তা হলো প্রতি চন্দ্র মাসের ১৩, ১৪ ও ১৫ (তের, চৌদ্দ ও পনের) তারিখ।

এ রোজাকে বলা হয় আইয়্যামে বিজের রোজা। যারা আইয়্যামে বিজের রোজা রাখবে তাদেরকে প্রত্যেক আরবি মাসের ১২ তারিখ দিবাগত রাতে সেহরি খেতে হয়।

হজরত আবু যার রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, হে আবু যার! যখন তুমি মাসের মধ্যে তিন দিন রোজা রাখবে – তবে তের, চৌদ্দ ও পনের তারিখে রোজা রাখবে।’ (তিরমিজি, নাসাঈ, মিশকাত)।

হজরত আদম ও হাওয়া আলাইহিস সালাম আল্লাহর হুকুম অমান্য করে বেহেশতের নিষিদ্ধ বৃক্ষের ফল ভক্ষণ করার পর তাদের শরীর থেকে জান্নাতের পোশাক খুলে যায় এবং তাদের শরীরের রং কুৎসিত হয়ে যায়। অতঃপর হজরত আদম ও হাওয়া আলাইহিস সালাম আল্লাহর হুকুমে চন্দ্র মাসের তের, চৌদ্দ ও পনের তারিখে রোজা রাখলে আবার তাদের শরীরের রং পূর্বের ন্যায় উজ্জ্বল হয়ে যায়। তাই এই তিন দিনকে আইয়্যামে বিজ বা উজ্জ্বলতার দিন বলা হয়।

বুখারি ও মুসলিমের বর্ণনায় এসেছে রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, প্রত্যেক মাসে তিনদিন রোজা পালনে সারা বছর রোজা পালনের সমান।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে এ তাৎপর্যপূর্ণ ফজিলত লাভে প্রত্যেক আরবি মাসের ১৩, ১৪ ও ১৫ তারিখ আইয়্যামে বিজের রোজা রাখার তাওফিক দান করুন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কপিরাইট © 2017 Lokaloy24

Desing & Developed BY ThemesBazar.Com